শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০৭:৪৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বসত ভিটা হারিয়ে খোলা আকশের নিচে ছিন্নমূল পরিবার নিষেধাজ্ঞা পৌঁছানোর ৫২ মিনিট আগে বেনাপোল দিয়ে ভারতে পালান পি কে হালদার নারী চালকদের কাজের সুযোগ তৈরিতে বেটার ফিউচার ফর উইমেন-উবার চুক্তি মুশতাক হত্যার বিচার চাই, সরকার পতন নয়-মোমিন মেহেদী বিবাহিত জীবন আরও ফিট রাখতে বিশেষ যে ৭ খাবার! সন্তান নিতে কতবার স’হবাস করতে হয় জানালেন ‘ডা. কাজী ফয়েজা’ বী’র্যপাত বন্ধ রে’খে অধিক সময় যৌ’ন মি’লন ক’রার সেরা প’দ্ধতি আশ্চর্য যে ফল খেলে আপনাকে মি’লনের আগে আর উ’ত্তেজক ট্যাবলেট খেতে হবে না সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেড়েছে নরমাল ডেলিভারীর সংখ্যা প্রত্যেকদিন সকালে সহবাস করলেই অবিশ্বাস্য উপকারিতা আত্রাইয়ে ইরি-বোরো ধান পরিচর্যায় ব্যস্ত কৃষক দেখুন এই ৫ রাশির মেয়েরাই স্ত্রী হিসাবে সবচেয়ে সেরা, বিস্তারিত যে কারণে নিকটাত্মীয় ভাই-বোনদের বিয়ে ঠিক নয়, জেনে রাখা দরকার সুন্দরগঞ্জে জনবল সংকটে স্বাস্থ্য সেবা বিঘিœত ভারতে মিয়ানমারের ১৯ পুলিশের আশ্রয় প্রার্থনা

শুভ্রতায় ভরা জলরাশি ঘেরা ‘নীরমহল’ ডাকছে পর্যটকদের

গোবিন্দ দেবনাথ, আগরতলা, ১৪ আগস্ট।। শুভ্রতায় ভরা জলরাশি ঘেরা ‘নীরমহল’। ১৯৩০ সালে ত্রিপুরার শেষ মহারাজা বীরবিক্রম কিশোর মাণিক্য দেববর্মণ বাহাদুর এই ‘নীরমহল’ স্থাপনা করেন। ত্রিপুরার রাজধানী আগরতলা শহর থেকে ত্রিপুরা বিশ্ববিদ্যালয় গেট, কমলাসাগর গেট, বিশালগড়, সিপাহীজালা হয়ে পাহাড়ী পথ, চা বাগান, রাবার বাগান এর মধ্য দিয়ে ঘন্টা দু’এক এর মধ্যেই পৌঁছামো যায় মেলাঘর বাজারে। মেলাঘর থেকে অল্প কিছুক্ষন পায়ে হেঁটে যেতেই চোখে পরে রৌদ্রসাগর। রৌদ্রসাগরের দিকে চোখ মেলে তাকাতেই দেখা যায় জলের মধ্যখানে দাঁড়িয়ে থাকা ‘নীরমহল’।
সারা ভারতে জলের মধ্যে প্রাসাদ এরকম দুইটি স্থাপনা রয়েছে। প্রথমটি রাজস্থানের ‘জলমহল’। ত্রিপুরার শেষ মহারাজা বীরবিক্রম কিশোর মাণিক্য দেববর্মণ বাহাদুর এর গ্রীষ্মকালীন বাসবভন ছিল এই ‘নীরমহল’। জানা যায় ১৯২১ সালে মহারাজা ব্রিটিশ কোম্পানী মার্টিন এন্ড বার্নিসকে দায়িত্ব দেন এই প্রাসাদটি তৈরি করে দেওয়ার জন্য যা তৈরি করতে ৯ বছর সময় লেগেছিল। মহারাজার এই মহলের মধ্যে মোঘল, মুসলিম ও হিন্দু ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির নিদর্শণ পাওয়া যায়। এই ভবনটিতে ২ টি অংশ রয়েছে। পশ্চিম পাশের অংশটি প্রাসাদের অন্দর মহল, যেটি শুধু রাজ পরিবারের সদস্যদের জন্য বরাদ্দ ছিল এবং পূর্ব পাশের অংশটি ছিল নাটক, যাত্রা ও নৃত্য পরিবেশনের জন্য। এই প্রাসাদটিতে সর্বমোট ২৪ টি কক্ষ রয়েছে। ধারনা করা যায় মহারাজা ঐ সময় যন্ত্রচালিত নৌযানে রাজঘাট থেকে ‘নীরমহল’ এ যেতেন।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38360985
Users Today : 2495
Users Yesterday : 5133
Views Today : 7384
Who's Online : 60
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/