মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ০৪:০৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
নোয়াখালী সুবর্ণচরের বিএনপি নেতা এনায়েত উল্লাহ বি কম এর ইন্তেকাল নওগাঁর মহাদেবপুরে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের গণকবর প্রাচীর দিয়ে সংরক্ষণের দাবি বীর মুক্তিযোদ্ধাদের শিক্ষা জাতীয় করন নিয়ে মনের কষ্ট ফেসবুকের মাধ্যমে ব্যক্ত করলেন অধ্যক্ষ এস এম তাইজুল ইসলাম কুলিয়ারচরে দিনব্যাপী ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন ২৫ ও ২৬ মার্চ হত্যাকাণ্ড চালিয়েছিল জিয়া মমতাকে ছেড়ে আসা মিঠুন এখন মোদির দলে সন্তান কোলে নিয়েই দায়িত্ব সামলাচ্ছেন নারী ট্রাফিক পুলিশ স্ত্রীসহ করোনায় আক্রান্ত সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট আসাদ মিয়ানমারে রাস্তায় হাজারো হাজার লোকের বিক্ষোভ স্কুল শিক্ষককে বিয়ে করলেন বিশ্বের শীর্ষ ধনী নারী প্রতারণার মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন আবেদন নামঞ্জুর চট্টগ্রামে প্রবাসী হত্যায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড সামাজিক মাধ্যমে কুরুচিপূর্ণ লেখা সতর্ক করলেন প্রধান বিচারপতি নিবন্ধনধারীদের এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়োগের নির্দেশ ১৫ দিনের মধ্যে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধনধারীদের নিয়োগ

শৃঙ্খলা ফেরাতে ১০ জেলায় শুভ উদ্বোধন: জরিমানা কাউকে হয়রানির জন্য হয়নি: রেঞ্জ ডিআইজি ডক্টর খঃ মহিদ উদ্দিন

উজ্জ্বল রায়■: খুলনা রেঞ্জের ১০টি জেলায় শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করলেন রেঞ্জ ডিআইজি মহিদ উদ্দিন। স্বাগত ও ধন্যবাদ জানিয়ে যানবাহনের কাগজপত্র যাচাই করুন-খুলনা রেঞ্জ ডিআইজি জরিমানা ও হয়রানি নয়, সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে আইন’ মোটরসাইকেল চালালে অবশ্যই হেলমেট পরতে হবে’ ‘ট্রাফিক পুলিশের শরীরে ক্যামেরা চালুর ব্যবস্থা করা হবে’ ‘ই-ট্রাফিক প্রসিকিউশন এবং পেমেন্ট সিস্টেম চালু’ বাংলাদেশ পুলিশ খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি ডক্টর খঃ মহিদ উদ্দিন বিপিএম (বার) বলেছেন, জরিমানা ও কাউকে হয়রানির জন্য ‘সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮’ করা হয়নি। সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে এ আইন করা হয়েছে। আমি মাঠ পর্যায়ের পুলিশ সদস্যদের বলব, স্বাগত ও ধন্যবাদ জানিয়ে যানবাহনের কাগজপত্র যাচাই করতে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন খুলনার পুলিশ সুপার এসএম শফিউল্লাহ বিপিএম, নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার), সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম (বার), যশোরের পুলিশ সুপার মঈনুল হক বিপিএম (বার), ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান পিপিএম, মাগুরার পুলিশ সুপার খান মুহাম্মদ রেজোয়ান পিপিএম, কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার), চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম, মেহেরপুরের পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলি, আরআরএফ খুলনার কমান্ড্যান্ট (এমপি) তাসলিমা খাতুন, পিটিসি খুলনার পুলিশ সুপার শুক্লা সাহা, নড়াইল সহ খুলনা বিভাগের ১০ জেলার পুলিশের কর্মকর্তা, সাংবাদিকবৃন্দ, বাস শ্রমিক, চালক, হেলপারসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ। প্রথমে যানবাহন থামানোর জন্য স্বাগত জানাতে হবে। কাগজপত্র যাচাইবাচাইয়ের জন্য পুলিশকে সময় দেয়ার জন্য চালকসহ সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানাতে হবে। কাউকে কোনো ভাবে হয়রানি করা যাবে না। আর নিজের নিরাপত্তার জন্য সড়ক আইন মেনে চলতে হবে। কারণ একটি দুর্ঘটনা, সারাজীবনের কান্না। বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার কাটাখালী শহীদ স্মৃতি আদর্শ ডিগ্রি কলেজ মাঠে ‘ই-ট্রাফিক প্রসিকিউশন এবং ফাইন পেমেন্ট সিস্টেম’ সফটওয়ারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। খুলনা রেঞ্জ ডিআইজি মহিদ উদ্দিন আরো বলেন, চালক ও সংশ্লিষ্টদের জরিমানা করে সরকার রাজস্ব বাড়াতে চায় না। জরিমানা দিয়ে সরকার পদ্মা সেতু বানাবে না। এই টাকা দিয়ে সরকার ধনী হতে চায় না। এই আইন করা হয়েছে যাতে কোন ধরণের জরিমানা না দিতে হয়। সবাই যেন আইন মেনে চলি। আইন কখনও মানুষের অকল্যাণের জন্য করা হয় না। এই আইন আমার, আপনার, জনসাধারণ, যাত্রীসাধারণ, চালক, শ্রমিকসহ সব মানুষের কল্যাণে করা হয়েছে। নতুন সড়ক নিরাপত্তা আইনের অনেক ধারাই ইতিবাচক। তাই চালক, হেলপারসহ সংশ্লিষ্টদের অহেতুক আতঙ্কিত না হয়ে যথাযথ ভাবে ট্রাফিক আইন মেনে চলার পরামর্শ দেন তিনি। মোটরসাইকেল ব্যবহারকারীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, হেলমেটছাড়া কাউকে রাস্তায় নামতে দেয়া হবে না। কারণ, দুর্ঘটনা ঘটলে মাথা সবচেয়ে বেশি আঘাতপ্রাপ্ত হয়। শরীরের অন্য অংশের চেয়ে মাথাটা যেহেতু ভারি ও স্পর্শকাতার, তাই মাথায় গুরুতর আঘাত লাগে। অনেক সময় সাধারণ ভাবে মাথার চিকিৎসা দেয়া সম্ভব হয় না। অনেক টাকা-পয়সা ব্যয় করেও ভালো চিকিৎসা পাওয়া যায় না। তাই সুস্থ, সুন্দর ও নিরাপদে স্ত্রী, সন্তান এবং পরিবার-পরিজনের কাছে ফিরে যেতে মোটরসাইকেল আরোহীদের হেলমেট পরতে হবে। যে ব্যক্তি মোটরসাইকেল চালাবেন, শুধু তার মাথায় হেলমেট পরলেই হবে না। যিনি মোটরসাইকেলে চড়বেন তারও হেলমেট পরতে হবে। ই-ট্রাফিক প্রসিকিউশন এবং ফাইন পেমেন্ট সিস্টেম সফটওয়ার উদ্বোধন প্রসঙ্গে ডক্টর খঃ মহিদ উদ্দিন বিপিএম (বার) বলেন, খুলনা রেঞ্জের ১০ জেলার জন্য আজ থেকে (সোমবার) যে পজ মেশিন ব্যবহারের উদ্বোধন করা হলো সেটি ডিজিটাল সিস্টেম। এখানে সব ধরণের তথ্য থাকবে। এই তথ্য প্রধান সার্ভারেও সংরক্ষিত থাকবে। আইন ভঙ্গকারীকে দ্বারে দ্বারে ঘুরতে হবে না। কোনো প্রকার হয়রানির শিকার হবে না। সাথে সাথে জরিমানার টাকা দিয়ে দায় মুক্ত হতে পারবেন। যেহেতু সকল তথ্য অনলাইনে থাকবে, তাই জরিমানাকারীও কোনো প্রকার দুর্নীতি করতে পারবেন না। এছাড়া ট্রাফিক পুলিশের শরীরে ক্যামেরা চালুরও ব্যবস্থা করা হবে। খুলনা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশন্স) এ কে এম নাহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক মামুনুর রশীদ, পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায় পিপিএম, শহীদ স্মৃতি ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ শেখ মশারেফ হোসেন প্রমুখ। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের (ইউসিবি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ শওকত জামিল, এসইভিপি অ্যান্ড হেড অব এমএফএস ডিভিশন এটিএম তাহমিদুজ্জামান, এফএভিপি এমএফএস ডিভিশন হাসান মোহাম্মাদ জাহিদ, গ্রামীণ ফোনের লিড ম্যানেজার হেলাল উদ্দিন আহম্মেদ ও হেড অফ কর্পোরেট বিজনেস নাসার ইউসুফ। এদিকে অনলাইনে জরিমানা পরিশোধের জন্য সিস্টেমগত সহযোগিতার জন্য গ্রামীণফোন, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক ও বাংলাদেশ পুলিশ খুলনা রেঞ্জের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। অন্যদিকে, ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ শাখার উপদেষ্টা লিটন শিকদারের পক্ষ থেকে সড়ক দুর্ঘটনারোধে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয়। অপরদিকে, নতুন আইন মেনে চলি, নিরাপদ সড়ক গড়ি” এ শ্লোগানকে সামনে নিয়ে জেলা পুলিশের আয়োজনে নড়াইল পুরাতন বাস টার্মিনালের গোল চত্বরে থেকে র‌্যালী শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন শেষে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে ঐ স্থানে পথ সভা অনুষ্ঠিত হয়। পথ সভায় জন নতুন সড়ক আইন মেনে চলার জন্য সচেতনতামূলক বক্তব্য রাখেন ও লিফলেট বিতরণ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম পিপিএম (পদোন্নতি প্রাপ্ত পুলিশ সুপার), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ ইমরান (সদর সার্কেল), এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ট্রাফিক কর্মকর্তা পানু সহ ট্রাফিক বিভাগের সকলে এ সময় উপস্থিত ছিলেন ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ। পরে ঐ স্থানে পথ সভা অনুষ্ঠিত হয়। পথ সভায় জন নতুন সড়ক আইন মেনে চলার জন্য সচেতনতামূলক বক্তব্য রাখেন এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, থানার অফিসার ইনচার্জ, জেলা বিশেষ শাখার ডি আই-১ এস এম ইকবাল হোসেন, ট্রাফিক বিভাগের সকল কর্মকর্তা ও পুলিশ সদস্য গণ বাস মালিক সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উক্ত সচেতনামূলক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। জেলার নড়াগাতী থানার আয়োজনে, ট্রাফিক স্বচেতনতা সপ্তাহ ২০১৯ পালিত। সড়ক পরিবহন আইন ২০১৯ মেনে চলুন নিরাপদ,সড়ক গড়তে সহায়তা করুন। এই শ্লোগানকে সামনে রেখে, বর্ণাঢ্যর্ র্যালি বের করে নড়াইলের নড়াগাতী পুলিশ থানা এলাকার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করেন,ও লিফলেট বিতরন, করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38375237
Users Today : 1957
Users Yesterday : 4902
Views Today : 11704
Who's Online : 34
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/