দেশের সংবাদ l Deshersangbad.com » শোক প্রকাশের মধ্য দিয়ে জাবিতে বর্ষবরণ পালিত হয়েছে



শোক প্রকাশের মধ্য দিয়ে জাবিতে বর্ষবরণ পালিত হয়েছে

৭:৫৮ অপরাহ্ণ, এপ্রি ১৫, ২০১৯ |জহির হাওলাদার

13 Views

মামুনুর রশিদ, জাবি প্রতিনিধি:
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ইংরেজী বিভাগের তৃতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থী শনিবার (১৩ এপ্রিল) রাতে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করায় গতকাল রবিবার শোক প্রকাশের মধ্য দিয়ে জাবিতে বর্ষবরণ পালিত হয়েছে।

শিক্ষার্থীদের দাবির প্রেক্ষিতে হয়নি মঙ্গল শোভাযাত্রাও। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রের সক্ষমতা বাড়ানো ও পূর্ণাঙ্গকরণের দাবি জানিয়ে অবস্থান ধর্মঘট, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত শনিবার (১৩ এপ্রিল) রাত ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী নুরুজ্জামান নিভৃত হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।
বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্র সূত্রে জানা যায়, ‘বুকে ও পেটে ব্যাথা নিয়ে নুরুজ্জামান সন্ধ্যা ৭টার দিকে চিকিৎসা কেন্দ্রে যান। এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসক ড. তরিকুল ইসলাম তাকে গ্যাস্ট্রিকের প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। এতে ব্যথা না কমলে তাকে সাভারে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।
বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রের আরেক চিকিৎসক ড. ইনামুর রশিদ বলেন, ‘আমরা শুরু থেকেই বারবার রোগীকে এনাম মেডিকেলে নিয়ে যাওয়ার জন্য বলেছি। ‘লোক আসছে’ বলে তার বান্ধবী কালক্ষেপণ করেছেন। রোগীর অবস্থা অবনতির দিকে গেলে রাত নয়টার পরে তাকে জোরপূর্বক এনাম মেডিকেলে পাঠানো হয়।’
পরে রাত নয়টার দিকে তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। কিন্তু পথেই তার মৃত্যু হয়। এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. হরনাথ সরকার বলেন, ‘শ্বাসকষ্ট থেকে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে নুররুজ্জামান মারা যান।’

নুরুজ্জামান নিভৃতের মৃত্যুর জন্য শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রের অব্যবস্থাপনা, প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা দেওয়ার অক্ষমতাকেই দায়ী করেন। তাদের দাবি ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রের অক্ষমতা এবং কর্তব্যরত চিকিৎসকদের রোগ শানাক্ত করার ব্যর্থতায় মৃত্যু হয়েছে শিক্ষার্থীর।’

শিক্ষার্থী মৃত্যুর ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে আসে পুরো বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে। গত রবিবার সকাল সাড়ে নয়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন কলা ভবনের সামনে উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম শোক প্রকাশ করে মঙ্গল শোভাযাত্রা কর্মসূচি বাতিলের সিদ্ধান্তের কথা জানান, এসময় উপাচার্য বলেন, ‘ইংরেজি বিভাগের মেধাবী ছাত্র নূরুজ্জামানের অকালে চলে যাওয়া আমাদের সকলের জন্য একটি কষ্টের বিষয়। নূরুজ্জামানের অকাল প্রয়াণে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও তার পরিবারের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি হলো। উপাচার্য নূরুজ্জামানের পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করে তার আত্মার শান্তি কামনা করেন।’ নূরুজ্জামানের প্রতি শোক ও সম্মান জানিয়ে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

তবে প্রশাসন শোক জানিয়ে বাদ্যযন্ত্র বিহীন মঙ্গল শোভাযাত্রা করার পক্ষে থাকলেও পরবর্তীতে সেটিও আর হয়নি। দু একটি বিভাগে নিজ নিজ উদ্যোগে কালো ব্যাজ ধারণ করে নুরুজ্জামান নিভৃতকে উৎসর্গ করে শোভাযাত্রা করেছে তবে সেখানে বাদ্যযন্ত্রের ব্যবহার ছিলনা। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রশাসন ও অনুষদগুলোর পক্ষ থেকে নেওয়া বৈশাখের সকল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়েছে, তবে বিভাগগুলোর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়েছে।
এর আগে রবিবার সকালে ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রের অবহেলায়’ শিক্ষার্থী নুরুজ্জামানের মৃত্যু হয়েছে দাবি করে অবস্থান ধর্মঘট পালন করেন কয়েকজন শিক্ষার্থী। একি সময়ে শিক্ষার্থীরা শহীদ মিনার সংলগ্ন সড়কে মানববন্ধন করেন। পরে মানববন্ধন শেষে চিকিৎসা কেন্দ্র সংস্কারের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্র অভিমুখে বিক্ষোভ মিছিল করে চিকিৎসা কেন্দ্রের সামনে বসে অবস্থান ধর্মঘট পালন করা হয়।

এসময় শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে মৃত্যুর ঘটনা তদন্ত করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা, নুরুজ্জামান নিভৃতের পরিবারের দায়িত্ব নেওয়া, পূর্ণাঙ্গ মেডিকেল বাস্তবায়নসহ বেশ কয়েকটি দাবি জানানো হয়। পরে বিকাল ৫টায় ধর্মঘট পালনকারী শিক্ষার্থীরা এক সংবাদ সম্মেলন করে আন্দোলনকারি শিক্ষার্থীরা জানান বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল দাবি মেনে নিয়ে তদন্ত সাপেক্ষে নুরুজ্জামানের পরিবারকে ক্ষতিপূরন  প্রদান, ২৪ এপ্রিলের মধ্যে প্রয়োজনীয় সকল যন্ত্রপাতি ক্রয়, ১৩ এপ্রিলের মধ্যে আধূনিক সুবিধাসম্পন্ন অ্যাম্বুলেন্স, সপ্তাহে সাতদিন চারজন করে চিকিৎসক সর্বক্ষনিক দায়িত্ব পালনসহ ১৩টি দাবি মেনে নেওয়া হয়েছে।
এ প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ বলেন, ‘নুরুজ্জামানের মৃত্যুতে শোক জানিয়ে মঙ্গল শোভাযাত্রা বাতিল করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন বিভাগের অনুষ্ঠানে গান-বাজনা বন্ধ রাখার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

Spread the love
16 Views
36 Views

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




উপদেষ্টা পরিষদ:

১। ২।
৩। জনাব এডভোকেট প্রহলাদ সাহা (রবি)
এডভোকেট
জজ কোর্ট, লক্ষ্মীপুর।

৪। মোহাম্মদ আবদুর রশীদ
ডাইরেক্টর
ষ্ট্যান্ডার্ড ডেভেলপার গ্রুপ

প্রধান সম্পাদক:

সম্পাদক ও প্রকাশক:

জহির উদ্দিন হাওলাদার

নির্বাহী সম্পাদক
উপ-সম্পাদক :
ইঞ্জিনিয়ার নজরুল ইসলাম সবুজ চৌধুরী
বার্তা সম্পাদক :
সহ বার্তা সম্পাদক :
আলমগীর হোসেন

সম্পাদকীয় কার্যালয় :

১১৫/২৩, মতিঝিল, আরামবাগ, ঢাকা - ১০০০ | ই-মেইলঃ dsangbad24@gmail.com | যোগাযোগ- 01813822042 , 01923651422

Copyright © 2017 All rights reserved www.deshersangbad.com

Design & Developed by Md Abdur Rashid, Mobile: 01720541362, Email:arashid882003@gmail.com

Translate »