রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:১৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
লালবাগের আজিজ হত্যা : এরশাদ শিকদারের সহযোগীদের বিরুদ্ধে রায় কাল ছাড়পত্র পাওয়ার আগেই রোগীকে ধর্ষণ, সাক্ষী সিসিটিভি সিঙ্গাপুর-মালয়েশিয়ায় ২২৭ কোটি টাকা পাচার করেছেন সম্রাট তানোরে ফসলের সঙ্গে শক্রতা  !   ডাক্তারদের জনগনের সেবায় আত্ম-নিয়োগ করতে হবে : রেজাউল করিম চৌধুরী শ্যামগঞ্জ-বিরিশিরি মহাসড়কে দিনে ট্রাক চলাচল বন্ধের দাবিতে-মানববন্ধন স্বাভাবিকভাবে বাঁচতে চায় রিপন ঘূর্ণিঝড় আম্পান ও জোয়ারের পানিতে ১৪০ কি.মি সড়ক ক্ষতিগ্রস্থ পতœীতলায় শিক্ষার্থীদের মানসম্মত শিক্ষার সুযোগ ও সহায়তা বৃদ্ধিতে করণীয় শীর্ষক আরকোর মতবিনিময় গুরুদাসপুরে ব্যাংক কর্মকর্তা স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন নোবিপ্রবিতে নিয়োগ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন বন্দির স্ত্রীকে নিয়ে কারারক্ষী নিরুদ্দেশ বিক্রি হওয়া সন্তান মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিলেন আইনমন্ত্রী স্বাস্থ্যের তৃতীয় শ্রেণির ড্রাইভারের ঢাকায় একাধিক বিলাসবহুল বাড়ি, গাড়ি বার কাউন্সিলের লিখিত পরীক্ষা স্থগিত

সত্যি কি হাতের স্পর্শে স্ত’নের আকার বৃদ্ধি পায় ? জেনে সঠিক কারন…

প্রাচীন কাল থেকেই নারী শরীর নিয়ে জল্পনা কল্পনার শেষ নেই। শরীরের সব অঙ্গই বয়স বাড়ার সাথে সাথে বৃদ্ধি পেতে থাকে। কিন্তু যখন প্রশ্ন ওঠে মেয়েদের শরীর অর্থাৎ মেয়েদের স্ত’ন নিয়ে, তখন সবার কথা বন্ধ হয়ে যায়। কারন মেয়েদের স্ত’নের আকৃতি কখন বৃদ্ধি পায় তার সদুত্তর কেউ দিতে পারেনা। নারী শরীর নিয়ে অনেকের অনেক রকম ধারনা।

কেউ কেউ ভাবে মেয়েদের স্ত’নে পুরুষের হাতের স্পর্শ পেলেই তা বৃদ্ধি পায়। আপনার মনেও যদি এরকম কোন ধারনা এসে থাকে তাহলে আপনি এই নিবন্ধটি পড়ুন। আসলে মেয়েদের শরীরের গঠন বৃদ্ধি পায় খুব দ্রুত। ছেলেদের সেই তুলনায় কম হয়।

মেয়েদের ৮ বছর বয়সেই শরীরে বৃদ্ধি হতে শুরু করে। বিয়ের পর মেয়েদের স্ত’নের আকারে পরিবর্তন আসে। কিন্তু বিয়ের সাথে স্ত’নের কোন সম্পর্ক নেই। আসলে বিয়ের পর সহবাসের সময় উত্তেজনার কারনে শরীরে রক্ত সঞ্চালন বেড়ে যায়।

শরীরের সমস্ত জায়গায় রক্ত সঞ্চালন বেড়ে গেলে স্ত’নের আকার বৃদ্ধি পায়। নাহলে মেয়েদের সাধারণত ২১ বছর বয়স পর্যন্ত স্ত’নের বৃদ্ধি ঘটে। স্ত’ন টিপলেই যে তার বৃদ্ধি ঘটে তা সম্পুর্ন ভুল কথা। এই ভুল কথাটির উপর ভিত্তি করে অনেক মেয়ে নিজের স্ত’ন বৃদ্ধি করার জন্য একা থাকার সময় নিজেই তা টেপে।

তাতে কোন লাভ হয় না। কিন্তু হ্যাঁ, যদি নিয়মিত স্ত’নের ম্যাসাজ করা হয়, তাহলে তার বৃদ্ধি হয় এবং ঝুলে যায় না। অবশ্য তা কিছু সময় সাপেক্ষ। কোন মেয়ের গর্ভবতী হওয়ার পর, সন্তান জন্মের পর বাচ্চাকে দুগ্ধ পান করানোর সময় মেয়েদের স্ত’নের বৃদ্ধি ঘটে।

আবার যারা নিয়মিত শারীরিক কসরত করে তাদের স্ত’নের আকার বৃদ্ধি পায়। শরীরে যাদের অতিরিক্ত মেদ জমে তাদের স্ত’নের আকার অস্বাভাবিক ভাবে বৃদ্ধি পায়।

নারী অঙ্গ গুলির আকার পরিবর্তনের ক্ষেত্রে দায়ী হল দুটি হরমোন। ইস্ট্রোজেন এবং প্রোজেস্টেরন। হরমোন ঘটিত কোন সমস্যা থাকলে সেই প্রভাব স্ত’নের উপরেও এসে পড়ে।

কিছু মহিলা যারা নিজেদের স্ত’ন নিয়ে খুশি নন তারা আকার বৃদ্ধি করার জন্য বিভিন্ন ক্রিম এবং নানা রকম ওষুধ ব্যবহার করেন। তাতে কোন ফল শেষ পর্যন্ত পাওয়া যায় না। নানারকম ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ফলে শরীরের ক্ষতি হয়। কোন কিছু করেই শরীরের কোন অঙ্গের কোন পরিবর্তন হয়না। যা হওয়ার নিজে থেকেই হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

37461701
Users Today : 11166
Users Yesterday : 5188
Views Today : 33937
Who's Online : 97
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone