শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ১০:২৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
বসত ভিটা হারিয়ে খোলা আকশের নিচে ছিন্নমূল পরিবার নিষেধাজ্ঞা পৌঁছানোর ৫২ মিনিট আগে বেনাপোল দিয়ে ভারতে পালান পি কে হালদার নারী চালকদের কাজের সুযোগ তৈরিতে বেটার ফিউচার ফর উইমেন-উবার চুক্তি মুশতাক হত্যার বিচার চাই, সরকার পতন নয়-মোমিন মেহেদী বিবাহিত জীবন আরও ফিট রাখতে বিশেষ যে ৭ খাবার! সন্তান নিতে কতবার স’হবাস করতে হয় জানালেন ‘ডা. কাজী ফয়েজা’ বী’র্যপাত বন্ধ রে’খে অধিক সময় যৌ’ন মি’লন ক’রার সেরা প’দ্ধতি আশ্চর্য যে ফল খেলে আপনাকে মি’লনের আগে আর উ’ত্তেজক ট্যাবলেট খেতে হবে না সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেড়েছে নরমাল ডেলিভারীর সংখ্যা প্রত্যেকদিন সকালে সহবাস করলেই অবিশ্বাস্য উপকারিতা আত্রাইয়ে ইরি-বোরো ধান পরিচর্যায় ব্যস্ত কৃষক দেখুন এই ৫ রাশির মেয়েরাই স্ত্রী হিসাবে সবচেয়ে সেরা, বিস্তারিত যে কারণে নিকটাত্মীয় ভাই-বোনদের বিয়ে ঠিক নয়, জেনে রাখা দরকার সুন্দরগঞ্জে জনবল সংকটে স্বাস্থ্য সেবা বিঘিœত ভারতে মিয়ানমারের ১৯ পুলিশের আশ্রয় প্রার্থনা

সাঁথিয়ায় এলজিইডির সড়ক নির্মাণকাজে অনিয়ম

 

সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধিঃ পাবনার সাঁথিয়ায় এলজিইডির
আরসিসি সড়ক নির্মাণকাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।
সড়কের নিম্নমানের রড দেয়াকে কেন্দ্র করে স্থানীয়দের সাথে বিতর্ক
হয় ঠিকাদারের।
জানা যায়, পাবনার সাঁথিয়ায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অধীনে
জিওবি মেইনটেনেন্স প্রকল্পের আওতায় প্রায় ৪০ লাখ টাকা ব্যয়ে
আজাহার-আফসার আলী সড়কের সাঁথিয়া পৌরসভার তিনমাথা মোর
থেকে পোস্ট অফিস হয়ে ডাঃ আবুল হোসেনের বাড়ির মোর পর্যন্ত
প্রায় ২৫০ মিটার আরসিসি সড়কের নির্মাণকাজের দায়িত্ব পান
আহম্মেদ এন্টারপ্রাইজ নামে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। শুরু থেকেই
ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সাঁথিয়া উপজেলা প্রকৌশল অফিসের সংশ্লিষ্ট
দায়িত্বরত অসাধু কর্মকর্তার যোগসাজসে অনিয়ম করে আসছেন।
প্রথমত: সড়কের নিম্নমানের রড দেয়াকে কেন্দ্র করে স্থানীয়দের সাথে
বিতর্ক হয় ঠিকাদারের। পরে বিষয়টি উপজেলা প্রকৌশলীর নিকট
অভিযোগ করলে নিম্নমানের রড সরিয়ে নেয়া হয়। সরজমিনে দেখা যায়,
ঢালাই মিক্সিংয়ে ব্যাপক অনিয়ম। একদিকে নিম্নমানের পাথর তা আবার
১ বস্তা সিমেন্টে ৫ কড়াইয়ের পরিবর্তে ৭ কড়াই পাথর ও ২ কাড়াই বালির
পরিবর্তে সেখানে ৩ টুকড়ি বালি দিয়ে ঢালাই মিক্সিং করা হয়েছে।
কারাইয়ের পরিবর্তে টুকড়ি ব্যবহারের কারণ হিসাবে জানা গেছে,
টুকড়িতে বেশী পরিমাণ বালি দেয়া যায়। নিম্নমানের পাথর ও ময়লা
আবর্জনা মিশ্রিত বালির ব্যবহার হওয়ায় কাজের মান নিম্নমানের
হয়েছে। অপরদিকে ৮ইঞ্চি ঢালাইয়ের ক্ষেত্রে ৭ ইঞ্চি ঢালাই করা হয়েছে।
বিষয়টি উপজেলা প্রকৌশলী ও দায়িত্বরত কর্মকর্তাকে বললে তারা কোন
কর্ণপাত না করেই ঢালাইয়ের কাজ শেষ করেন।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক
প্রকৌশল অফিসের এক কর্মচারী জানান, তদন্ত হলে আজহার-আফসার

আলী সড়কের প্রথম অংশের ১২ মিটারের মধ্যে থেকে স্যাম্পল নিয়ে ল্যাবে
পাঠানো হবে। কারণ, এই ১২ মিটার কাজ সিডিউল অনুযায়ী করা
হয়েছে। তবে পুরো কাজই নয়ছয় হয়েছে কিন্তু ভিডিও করার বিষয়টি
টের পেয়ে মাধপুরÑসাঁথিয়া সড়কের সাথে লাগানো প্রথম অংশের মাত্র
১২ মিটার কাজ সিডিউল মোতাবেক করেন।কাজের অনিয়ম প্রসঙ্গে
স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, পুরো কাজেই অনিয়ম হয়েছে। সড়ক
নির্মাণকাজে এক বস্তা সিমেন্টের সাথে ৭ থেকে ৯ কাড়াই পাথর ও
৩/৪ টুকড়ি বালি দিয়ে ঢালাই মিক্সিং করা হয়েছে। তারা আরও বলেন,
সংশ্লিষ্ট দায়িত্বরত কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবহিত করলে তিনি
আমাদের উপর রেগে উঠেন এবং অশালীন কথাবার্তা বলেন।এ বিষয়ে
উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ শহিদুল্লাহ বলেন, কাজের মান খুব ভাল হয়েছে।
কোন প্রকার অনিয়ম করা হয়নি। তিনি বলেন,এক বস্তা সিমেন্টে ২
টুকড়ি বালি ও ৫ কাড়াই পাথর দিয়েই ঢালাই মিক্সিং হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38357648
Users Today : 4290
Users Yesterday : 6146
Views Today : 14970
Who's Online : 77
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/