সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বেঁচে থাকলে পহেলা বৈশাখ-ঈদ অনেক পাবেন: ওমর সানী লক্ষ্মীপুরে বেড়িবাঁধ সড়ক সংস্কার কাজে অনিয়মের অভিযোগ লক্ষ্মীপুরে ব্যবসায়িদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করলেন এডভোকেট নয়ন সাকিবকে কলকাতার একাদশে রাখেননি বিশপ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ চলবে সপ্তাহে তিনদিন সৌদি আরবে মঙ্গলবার থেকে রোজা শুরু বাংলাদেশি শিক্ষকদের আমেরিকান ফেলোশিপের আবেদন চলছে ঘরের কোন জিনিস কতদিন পরপর পরিষ্কার করা জরুরি কিশোরকে গাছে বেঁধে নির্মম নির্যাতন, পায়ুপথে মাছ ঢুকানোর চেষ্টা পদ্মায় ভেসে উঠল শিশুর মরদেহ ভাইকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল বোনের ৭ দিনের সাধারণ ছুটির ঘোষণা আসতে পারে টার্গেট রমজান মাস তৎপর হয়ে উঠেছে ‘ভিক্ষুক চক্র’ মামুনুলের দ্বিতীয় স্ত্রীর ঘরে মিলেছে ৩ ডায়েরি এই ফলগুলো খেয়েই দেখুন!

সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেড়েছে নরমাল ডেলিভারীর সংখ্যা

 

সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁ জেলার সীমান্তবর্তী
সাপাহার উপজেলা সদরে অবস্থিত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স।
কিছুদিন আগেও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি চলছিলো রং-বর্ণহীন
অবস্থায়। বর্তমানে এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি সেজেছে স্ব-বর্ণে ।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্বরের চারি দিকে নানা রঙ্গের ফুল ,ফল ,
বনজ ও ঔষধী গাছের সমারোহ দেখে যেন চোখ জুিড়য়ে যায়।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর চারি পার্শ্বে হলুদ, লাল সহ নানা
বর্ণের ফুলের সুবাসে বাতাস যেনো এক অপরূপ লীলাভ‚মির
নিদর্শণ বহন করছে। শুধু কি তাই! স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিতরের অবস্থাও
নজরে আসার আসার মতো! এরই ধারাবাহিকতায় এই স্বাস্থ্য
কমপ্লেক্সে বেড়েছে সেবার মান। সম্প্রতিক কালে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে
নরমাল ডেলিভারীর সংখ্যা আসলেই নজর কাড়ার মতো! এত সবের
পিছনে যে ব্যক্তিটির অক্লান্ত পরিশ্রম ও মেধা জড়িয়ে আছে
তিনি আর অন্য কেউ নয়, তিনি হলেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার
পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রুহুল আমিন।
ডাঃ রুহুল আমিন একান্ত সাক্ষাৎকারে এ প্রতিনিধিকে জানান,
সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসে
নরমাল ডেলিভারী হয়েছে ৩৩ জন, চলতি বছরের জানুয়ারীতে নরমাল
ডেলিভারীর সংখ্যা ৪০জন, ফেব্রæয়ারী মাসে ৪১জন প্রসূতি
মায়ের নরমালে বাচ্চা ডেলিভারী হয়েছে। এতে করে গত তিন মাসে
মোট ডেলিভারীর সংখ্যা দাঁড়ায় ১১৫ জনের। যা এই স্বাস্থ্য
কমপ্লেক্সের জন্য বিরল একটি দৃষ্টান্ত।

ডেলিভারী রুম ও ডেলিভারী রোগীদের স্বাস্থ্য সেবা সম্পর্কে ডাঃ
রুহুল আমিন বলেন, এর পূর্বে এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রসূতি
মায়েদের ডেলিভারীর জন্য একটি মাত্র রুম ছিলো যা এই
হাসপাতালের জন্য যথেষ্ট ছিলোনা। পরবর্তী সময়ে তার ঐকান্তিক
প্রচেষ্ঠায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অব্যবহৃত একটি রুমকে ডেলিভারীর
কাজে লাগানোর লক্ষ্যে ব্যাবহার উপযোগী করে তোলা হয়। যার ফলে
বর্তমানে উপযুক্ত একটি ডেলিভারী রুমে পরিণত করা হয়। যেখানে
নির্ধারিত ছয় জন নার্সকে নির্দিষ্ট শিডিউলের মাধ্যমে
ডিউটি দেয়া হয়।
এ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নানাবিধ উন্নয়নের অংশ হিসেবে
নরমাল ডেলিভারী একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা বহন করছে। এতে করে
একদিকে গরীব রোগীরা যেমন পাচ্ছেন উন্নত স্বাস্থ্য সেবা
অপরদিকে বেঁচে যাচ্ছেন ক্লিনিকের দালালদের নানাবিধ খপ্পর
থেকে। ডাঃ রুহুল আমিনের এ ধরণের উদ্যোগকে সাধুবাদ
জানিয়েছেন এলাকার সচেতন মহল।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38442394
Users Today : 605
Users Yesterday : 1265
Views Today : 8068
Who's Online : 37
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone