মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ১০:১৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ডাবের খোসায় গর্ত ভরাট‍! নিয়মিত পর্নো ভিডিও দেখতেন শিশুবক্তা রফিকুল আইপিএল নিয়ে জুয়ার আসর থেকে আটক ১৪ কারাগারে কেমন কাটছে পাপিয়ার দিনকাল এক ঘুমে কেটে গেলো ১৩ দিন! কেউ ‘কাজের মাসি’, কেউবা ‘সেক্সি ননদ-বৌদি’ ৬৪২ শিক্ষক-কর্মচারীর ২৬ কোটি টাকা ছাড় করোনায় আরো ৬৯ জনের মৃত্যু, আক্রন্ত ৬০২৮ বাংলাদেশে করোনা টানা তিনদিন রেকর্ডের পর কমল মৃত্যু, শনাক্তও কম করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আইজিপি শো-রুম থেকে প্যান্ট চুরি করে ধরা খেলেন ছাত্রলীগ নেতা করোনা নিঃশব্দ ও অদৃশ্য ঘাতক,সতর্কতাই এ থেকে মুক্তির একমাত্র পথ ——-ওসি দীপক চন্দ্র সাহা তানোরে প্রণোদনার কৃষি উপকরণ বিতরণ শিবগঞ্জে কৃষি জমিতে শিল্প পার্কের প্রস্তাবনায় এলাকাবাসীর মানববন্ধন সড়কের বেহাল দশায় চরম জনদুর্ভোগ

সুন্দরগঞ্জে জনবল সংকটে স্বাস্থ্য সেবা বিঘিœত

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি: জনবল সংকটে স্বাস্থ্য সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। ফলে মানুষের স্বাস্থ্য সেবা বিঘিœত হচ্ছে।
চিকিৎসক সংকটে এ হাসপাতালে অপারেশন থিযেটার চালু করা সম্ভব হচ্ছে না। অপারেশনের
রোগিদের বাধ্য হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে
যেতে বাধ্য হয়। আল্টাসসোনোগ্রাফ মেশিন নষ্ট হয়ে পড়ে আছে। ইসিজি মেশিন না
থাকায় হার্টের দরিদ্র রোগিরা চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সুন্দরগঞ্জ উপজেলার
১৫টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার প্রায় ৯ লাখ মানুষের স্বাস্থ্য সেবার ভরসা এ স্বাস্থ
কমপ্লেক্সটি ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নিত করা হলেও জনবলসহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা
তেমন বৃদ্ধি করা হয়নি। হাসপাতালে রোগিদের সেবা দিতে চিকিৎসক ও নার্সদের হিমশিম
খেতে হয়। বহি:বিভাগে প্রতিদিন দু’শতাধিক রোগি চিকিৎসা নিতে আসেন। এছাড়াও
বর্তমানে করোনা প্রতিরোধের ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রম চলছে। করোনা প্রতিরোধের
ভ্যাকসিন লোকজন ছাড়াও প্রতিদিন গড়ে ৫৫ থেকে ৬০ জন মা ও শিশু টিকা নিতে আসেন।
এসব সীমাবন্ধতার মধ্যে যে সব রোগি স্বাস্থ্য সেবার ব্যবস্থাপত্র নিয়ে হাসপাতাল থেকে বের
হন তখন তাদেকে পড়তে হয় আরেক ঝামেলায়। চাতক পাখির ওঁৎ পেতে থাকা বিভিন্ন ঔষধ
কোম্পানির মেডিকেল রি-প্রেজেন্টেটিভগন তাদের ঘিরে ধরে মোবাইলে ব্যবস্থাপত্রের ছবি
তুলেন। এতে রোগি ও তাদের স্বজনরা অতিষ্ট হচ্ছে। কতৃপক্ষ নোটিশ দিলেও মেডিকেল রি-
প্রেজেন্টেটিভগন বিষয়টি আমলেই নিচ্ছে না। জানা যায় সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য
কমপ্লেক্সে ১০ জন চিকিৎসকের পদের মধ্যে ৫টি পদ শূন্য রয়েছে।
মেডিসিন,্ধসঢ়;এ্যানেসথেসিয়া, শিশু, সার্জারি ও গাইনী বিশেষজ্ঞের পদগুলো শূন্য থাকায়
রোগিরা চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এসব বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক না থাকায় অন্য
চিকিৎসকগণ রোগিদের সেবা দিচ্ছে। উপজেলায় সাতটি উপ স্বাস্থ্য কেন্দ্র রয়েছে।
প্রতিটি উপ স্বাস্থ্য কেন্দ্রে একজন মেডিকেল অফিসার,একজন সহকারি মেডিকেল
অফিসার, একজন ফার্মাসিস্ট ও একজন অফিস সহায়কের পদ রয়েছে। তবে সাতটি উপ স্বাস্থ্য
কেন্দ্রের মধ্যে একটিতেও নেই মেডিকেল অফিসার,চারটিতে নেই সহকারি মেডিকেল
অফিসার, পাঁচটিতে নেই ফার্মাসিস্ট ও তিনটি নেই অফিস সহায়ক। এছাড়াও ইউনিয়ন
স্বাস্থ্য সহকারি ৮৫টি পদের মধ্যে ১৭টি পদ দীর্ঘদিন ধরে শূন্য রয়েছে। ইউনিয়ন সহকারি
মেডিকেল অফিসারের আট পদের মধ্যে আটটি শূন্য রয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার
পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আশরাফুজ্জামান সরকার বলেন চিকিৎসকসহ জনবল সংকট ও
অন্যান্য সমস্যা থাকলেও রোগিদের সেবা দেওয়ার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছি। গাইবান্ধা
জেলা সিভিল সার্জন ডাক্তার আ.ম আখতারুজামান বলেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে
চিকিৎসকসহ জনবল সংকট রয়েছে। জেলায় তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কমৃচারীর অনেক পদ
শূন্য রয়েছে। নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ থাকায় পদগুলো পুরণে একটু সময় লাগবে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38444309
Users Today : 1264
Users Yesterday : 1256
Views Today : 16344
Who's Online : 36
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone