মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৩:২৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
খাদ্যপণ্যের বিজ্ঞাপনে একগুচ্ছ নিষেধাজ্ঞা আসছে, থাকছে জেল-জরিমানা হাতে বড় একটি ট্যাবলেট ফোন নিয়ে ডিজিটাল জুয়ার আসরে ব্যস্ত তরুণ-তরুণী রমজানের নতুন চাঁদ দেখে বিশ্বনবী যে দোয়া পড়তেন ফরিদপুরে চাের সন্দেহে গণপিটুনীতে একজন নিহত এটিএম বুথ থেকে তোলা যাবে এক লাখ টাকা যৌবন দীর্ঘস্থায়ী করে যোগ ব্যায়াম ‘শশাঙ্গাসন’ আজ চৈত্র সংক্রান্তি মসজিদে সর্বোচ্চ ২০ জন নিয়ে নামাজ পড়া যাবে অপহরণ করা হয়েছিলো ম্যারাডোনাকে দুপুরে বিএনপির সংবাদ সম্মেলন বসুন্ধরা সিটি শপিংমল খোলা থাকবে মঙ্গলবার উত্তম কুমারের নাতবৌয়ের ভিডিও ভাইরাল রমজান শুরু কবে জানা যাবে সন্ধ্যায় সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ২৯ লাখ ৫৮ হাজার ছাড়ালো

স্ত্রীসহ জাতীয় পঙ্গু হাসপাতালের চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা

ঢাকায় এক চিকিৎসকের বাসায় শিশু নিপা বাড়ৈকে (১১) অমানুষিক নির্যাতনের অভিযোগে বরিশালের উজিরপুর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন শিশুটির চাচা। জাতীয় পঙ্গু হাসপাতালের অর্থপেডিক্স ও ট্রমা বিশেষজ্ঞ ডা. রবিন, তার স্ত্রী রাখি দাস এবং সহযোগী বাসু দেবকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে শিশুটির চাচা তপন বাড়ৈ বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

এদিকে উপজেলা হাসপাতাল থেকে হঠাৎ করে উধাও হয়ে যাওয়া নিপাকে শনিবার ভোরে বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার আস্কর গ্রামের নিপার চাচার মামা শ্বশুর বিমল বাড়ৈর বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয়। নিপা এখন উজিরপুর থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

নিপা উজিরপুর উপজেলার জামবাড়ি এলাকার ননী বাড়ৈর মেয়ে। তার বাবা একজন মানসিক প্রতিবন্ধী। তার মা দুই বছর আগে অন্য একজনকে বিয়ে করেন। দুই বোন ও এক ভাইয়ের মধ্যে নিপা মেঝ।

উজিরপুর মডেল থানার ওসি জিয়াউল আহসান বলেন, বৃহস্পতিবার শিশুটিকে উজিরপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার ভোর ৫টার দিকে হাসপাতাল থেকে শিশুটি নিখোঁজ হয়। ওই দিন হসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার ডা. সামসুদ্দোহা তৌহিদ বাদী হয়ে উজিরপুর মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। এরপর অনেক খোঁজাখুঁজির পর নিপাকে আগৈলঝাড়া থেকে উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়।

ওসি আরো জানান, নিপাকে উদ্ধারের পরপরই তার চাচা তপন বাড়ৈ বাদী হয়ে চিকিৎসক ও তার স্ত্রীসহ তিন জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় আসামিদের গ্রেফতার করতে চিকিৎসক যেখানে বসবাস করেন সেখানকার থানার সহায়তা চাওয়া হবে। এরপর ওই থানা পুলিশের সাহায্যে তাদের গ্রেফতার করে বরিশাল আদালতে সোপর্দ করার প্রক্রিয়া চলছে।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, গত ছয় মাস আগে ডা. রবিনের ঢাকার শ্যামলীর বাসায় গৃহপরিচারিকার কাজ শুরু করে নিপা। কাজ শুরুর পর বিভিন্ন সময় চিকিৎকের স্ত্রী রাখি দাস নানা অজুহাতে তার ওপর শারীরিক নির্যাতন চালাতো। কখনও গরম খুন্তির ছ্যাঁকা, কখনও ছুরির খোঁচা দেওয়া, আবার কখনও দেয়ালে ঠোকা হতো তার মাথা। রাগের মধ্যে কখনও তার গলা চেপে শ্বাসরোধ করার চেষ্টা করতেন গৃহকর্তার স্ত্রী। অব্যাহত নির্যাতনে শিশুটি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় লোক মারফত ঢাকা থেকে উজিরপুরের জামবাড়ি একটি দোকানের সামনে ফেলে যাওয়া হয় নিপাকে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38443954
Users Today : 909
Users Yesterday : 1256
Views Today : 11768
Who's Online : 36
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone