বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০৪:৩৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছ কাটার প্রতিবাদে মানববন্ধন ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড় আসছে, ২ নম্বর সতর্কতা সংকেত করোনায় দেশে মৃত্যু ও শনাক্ত কমেছে কাল থেকে চলবে গণপরিবহন, মানতে হবে যেসব নির্দেশনা ৫০ হাজার টন চাল আসছে ভারত থেকে গণপরিবহনের জন্য বিআরটিএ’র ৫ নির্দেশনা পার্বতীপুরে হেরোইনসহ একাধিক মাদক মামলার এক আসামি গ্রেফতার গোদাগাড়ীতে বৃত্তি ও শিক্ষাপোকরণ বিতরণ বড়াইগ্রামে ৪ হাজার ২’শ জনকে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা ইউনাইটেড খানসামা’র উদ্যোগে দুঃস্থ ও অসহায় নারী-পুরুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ বাগেরহাটে মোরেলগঞ্জে সরকারিভাবে ২৭ টাকা কেজি দরে ধান ক্রয়ের উদ্বোধন ১৬ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন চরম অর্থ সংকটে ভাড়াটিয়ারা, ভালো নেই বাড়িওয়ালারাও ৬ মে থেকে গণপরিবহন চালুর বিষয়ে প্রজ্ঞাপনে যা আছে ঈদের ছুটিতে কর্মজীবীদের কর্মস্থলে থাকার নির্দেশ

১৩ আগস্ট।। ত্রিপুরার ইতিহাসে গৌরবময় দিন ছিল মঙ্গলবার।

গোবিন্দ দেবনাথ, আগরতলা, ১৩ আগস্ট।। ত্রিপুরার ইতিহাসে গৌরবময় দিন ছিল মঙ্গলবার। এদিন ধলাই জেলার আমবাসা মহকুমার চন্দ্রাইপাড়া দ্বাদশ শ্রেণী স্কুল মাঠে হয় আত্মসমর্পণ পর্ব। গত ১০ আগষ্ট দিল্লিতে রাজ্যের নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গী সংগঠন এনএলএফটি র সাথে মেমোরেন্ডাম অফ সেটেলমেন্ট স্বাক্ষর হয়। এই স্বক্ষরের সময় কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষে ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের জয়েন্ট সেক্রেটারি সত্যেন্দ্র গর্গ। রাজ্যে সরকারের পক্ষে ছিলেন স্বরাষ্ট্র দপ্তরের এডিশনাল চিফ সেক্রেটারি কুমার অলক। এনএলএফটি র পক্ষে ছিলেন সবির দেব্বর্মা ও কাজল দেব্বর্মা। সেই চুক্তি অনুযায়ী স্থীর হয় এনএলএফটি র মোট ৮৮ জন সদস্য অস্ত্র সহ স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসবে। তারই অঙ্গ হিসাবে মঙ্গল বার হয় এই আত্মসমর্পণ পর্ব। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের হাত ধরে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গী সংগঠন এনএলএফটির ৮৮ জন সদস্য। এনএলএফটি জঙ্গী সংগঠন এর নেতা সবীর দেব্বর্মা ও কাজল দেব্বর্মা মুখ্যমন্ত্রীর হাতে অস্ত্র তুলে দিয়ে আত্মসমর্পন প্রক্রিয়ার সূচনা করেন। এই আত্ম সমর্পণ অনুষ্টানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব বলেন তৎকালীন রাজনীতি এদের বিপথগামী করেছিল। নেতৃত্বরা এই কান্ড ঘটিয়েছে। বিভেদ তৈরী করার প্রমান ৭২ বছর ধরে ৩৭০ এবং ৩৫(এ) লাগিয়ে জম্মুকাশ্মীরের উন্নয়ন হচ্ছিল না। এর পরিনিতিতে ৪২ হাজার সেনা জওয়ান শহীদ হয়। আজ যারা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এসেছে তাদের স্বাগত জানান মুখ্যমন্ত্রী। কোন স্লোগান ছাড়া জনজাতিদের উন্নয়নে কাজ করছে নুতুন সরকার। সবকা সাথ সবকা বিকাশ এবং সবকা বিশ্বাস এই মন্ত্রে কাজ করছে। প্রধানমন্ত্রী, গৃহমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। যারা এদের বিপথে চালিত করেছিল তারা তখনও সঠিক ছিল না। এখনও যারা চাইছে তারা আরো সঠিক নয়। সঠিক কেবল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকার। সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে তা আজ প্রমানি। এতদিন জনজাতিদের উন্নয়নে কোন কাজ করা হয়নি। জনজাতিদের জন্য কাজ করছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ত্রিপুরার উন্নয়নে সামিল হওয়ার জন্য আত্মসমর্পণকারীদের আহবান জানান মুখ্যমন্ত্রী। এই রাস্তাই সঠিক। তবে এটা অনেক আগেই তৈরী হওয়ার কথা ছিল। দেরীতে হলেও হয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। সরকারের উন্নয়নের দিশাতে মিলে কাজ করতে হবে। সরকার তার দ্বায়িত্ব প্রতিপালন করবে। ১৯৮০ থেকে ২০০৫ পর্যন্ত সেই রাস্তা সঠিক থাকলে আজ এই আত্মসমর্পণ মঞ্চে এরা বসতেন না। বিপথগামীতার পথ সঠিক ছিল না। যারা এদের পরিচালিত করেছে তাদের তিরস্কার জানান মুখ্যমন্ত্রী।কেন্দ্রের শক্তিশালী সরকারের সংগে মিলিত ভাবে জনতার সরকার ত্রিপুরার জন্য কাজ করবে।

Please Share This Post in Your Social Media


বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

https://twitter.com/WDeshersangbad

© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone