শুক্রবার, ০৭ অগাস্ট ২০২০, ১০:২৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
সিনহা হত্যা: আদেশ পরিবর্তন করে ৭ আসামির ৭ দিনের রিমান্ড রিমান্ডে থাকা টেকনাফের সাবেক ওসির একটি ভিডিও বক্তব্য ভাইরাল ক্রসফায়ার ছিলো ওসি প্রদীপের নেশা, বদির সাথে ছিলো সখ্যতা আ.লীগের উপদেষ্টা জয়নাল হাজারীর বিরূদ্ধে জিডি ‘উস্কানিমূলক তথ্যে সোশ্যাল মিডিয়া কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধেও আইনি ব্যবস্থা’ আর নয় বাসা থেকে অফিস বড়াইগ্রামে অতিরিক্ত ভাড়া নেয়ায় ১৫ পরিবহনকে জরিমানা মাহবুব আলী ৩৬তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে শাজাহানপুরে শ্রমিকদল এর উদ্যোগে স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল গাবতলীতে মাহবুব আলী খান এর ৩৬তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্রদল এর দোয়া মাহফিল মাহবুব আলী ৩৬তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে গাবতলীতে ছাত্রদল এর উদ্যোগে দোয়া মাহফিল নেত্রকোনার মেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী তোরাবির আত্মহত্যা জামালপুর জেলায় ক্রমেই বাড়ছে করোনার রোগী প্রচন্ড তাপদাহের পর ৬ আগষ্ট কুষ্টিয়াতে ঝুম বৃষ্টি জনজীবনে সস্তি ফিরেছে পরিবর্তনশীল বিশ্বে দক্ষিণ এশিয়া- ড. ইমতিয়াজ আহমেদ পঞ্চগড়ে একাংশ সাংবাদিকদের আর্থিক প্রণোদনার চেক হস্তান্তরে বাকী বঞ্চিতদের ক্ষোভ।

৮০ বছর বয়সের নারীকে ধর্ষণ

চলতি মসের ২১ তারিখে থাইল্যান্ডের ফট্টালুং প্রদেশে ৮০ বছরের এক বৃদ্ধা ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে খবর প্রকাশ করেছে দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যম ন্যাশন থাইল্যান্ড। বর্তমানে তাকে বাড়িতে রেখেই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তাঁর শরীরে স্যালাইন পুশ করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, একদিন রাস্তায় তিনি স্থানীয় খাবার বিক্রি করছিলেন। এ সময় ৫০ বছর বয়সী এক ব্যক্তি তাঁর কাছে আসেন। তাঁরা দু’জন কথা বলেন। ওই নারী তাঁর সঙ্গে মিষ্টি মিষ্টি কথা বলেন। একপর্যায়ে ওই বৃদ্ধা তাঁকে জানান, ওই নারী তাঁকে উঠতি বয়সেই (তরুণী বয়সে) নিজের প্রতি আকৃষ্ট করেন। তখন তাঁরা একে অপরের প্রতিবেশী ছিলেন।

স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, অভিযুক্ত ওই নারীকে জানান, তিনি তাঁর সব খাবার কিনতে যাচ্ছেন। তবে একটি শর্তও জুড়ে দেন তিনি। সব খাবার কেনার শর্ত ছিল ওই নারীকে অভিযুক্তের সঙ্গে এক আত্মীয়র বাড়িতে খাবার পৌঁছে দিতে যেতে হবে। তখন ওই নারী রাজি হয়ে যান। তাঁর জন্য থাইল্যান্ডের স্থানীয় মুদ্রায় দুই হাজার বাথের বিনিময়ে তিনি রাজি হন।

খাবার নিয়ে যাওয়ার সময় অভিযুক্ত জনশূন্য রাস্তায় দিয়ে চলা শুরু করেন। এ সময় ওই নারীর পার্স নিয়ে নেন অভিযুক্ত। হঠাৎ করেই তিনি একটি অর্ধনির্মিত বাড়ির সামনে গিয়ে দাঁড়ান। তারপর ওই নারী অভিযুক্তের মূল উদ্দেশ্য বুঝতে পারেন। এরপর পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু লাভ হয়নি।

এই ঘটনায় অভিযুক্তকে শিগগিরই গ্রেপ্তার করার দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগীর আত্মীয়রা। স্থানীয় পুলিশ মঙ্গলবার জানিয়েছে, অভিযুক্তকে ধরতে প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে আলোচনা করা হচ্ছে। এ ছাড়া আরো তথ্যের জন্য সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করেছে পুলিশ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone