ডিসিসি দক্ষিণের তিন হাজার ৬৩১ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা

দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) তিন হাজার ৬৩১ কোটি  ৪০ লাখ  টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে।  এ বাজেটে মশক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ২০১৯-১০ অর্থবছরে ৪৩ কোটি ৩০ লাখ টাকা ব্যয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)।  গত বছরের বরাদ্দের চেয়ে (১৯ কোটি ৫২ লাখ) দ্বিগুণের বেশি বরাদ্দ পেয়েছে এই খাত।
রোববার ডিএসসিসি নগর ভবনে চলতি অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা করেন ডিএসসিসি মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। এবারের বাজেটের আকার তিন হাজার ৬৩১ কোটি ৪০ লাখ টাকা।
বরাদ্দ ব্যয়ের হিসাবে চতুর্থ সর্বোচ্চ বরাদ্দ পেয়েছে মশক খাত। অন্য তিন শীর্ষ খাত হচ্ছে কর্মচারীদের বেতন, ভাতা ও অন্যান্য (৩৫০ কোটি), বিদ্যুৎ, জ্বালানি, পানি ও গ্যাসের খরচ (৭৯ কোটি) এবং কল্যাণমূলক ব্যয় (৪৪.৪০ কোটি)।
মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে মশার ওষুধে জ্বালানিসহ ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৮ কোটি টাকা। কচুরিপানা বা আগাছা পরিষ্কার ও পরিচর্যায় বরাদ্দ রাখা হয়েছে এক কোটি ৩০ লাখ টাকা। আর সবশেষ ফগার, হুইল ও স্প্রে মেশিন পরিবহনে বরাদ্দ ব্যয় রাখা হয়েছে চার কোটি টাকা। প্রতিটি খাতেই বরাদ্দ গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের তুলনায় বাড়ানো হয়েছে।
এ বিষয়ে মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, মশক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এই খাতে আমরা আগের যেকোনো বারের তুলনায় সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ দিয়েছি। সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের টার্গেট করে ইতোমধ্যে আমাদের বিভিন্ন কার্যক্রম চলছে। বিভিন্ন ভবন, স্থাপনা ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে আমাদের ভ্রাম্যমাণ আদালত যাচ্ছে এবং যেখানে অসঙ্গতি দেখছে সেখানে জরিমানা ও জেল দেওয়া হচ্ছে। প্রয়োজনে এই খাতে আরও বরাদ্দ দেওয়া হতে পারে বলেও ইঙ্গিত দেন সাঈদ খোকন।
Please follow and like us:
error

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*