Breaking News
Home / Uncategorized / ৭০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান শিক্ষক, শিক্ষক/শিক্ষিকাদের সমন্বয়ে মাদকাসক্তি প্রতিরোধে করণীয় শীর্ষক মতবিনিময় সভা

৭০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান শিক্ষক, শিক্ষক/শিক্ষিকাদের সমন্বয়ে মাদকাসক্তি প্রতিরোধে করণীয় শীর্ষক মতবিনিময় সভা

কারিতাস প্রচেষ্টা প্রকল্প এবং সাভার উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কার্যালয়ের উদ্যোগে ৭০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান শিক্ষক, শিক্ষক/শিক্ষিকাদের সমন্বয়ে মাদকাসক্তি প্রতিরোধে করণীয় শীর্ষক মতবিনিময় সভা সাভার উপজেলা অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকেন সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মঞ্জুরুল আলম রাজীব, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোসাম্মদ কামরুন্নাহার, কারিতাস প্রচেষ্টা প্রকল্পের ইনচার্জ ফরিদ আহাম্মদ খান। মতবিনিময় সভায় প্রথমে কারিতাস প্রচেষ্টা প্রকল্পের মাদকাসক্তি প্রতিরোধে বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রমের উপর প্রতিবেদন ও স্বচিত্র উপস্থাপন করেন। মতবিনিময় সভায় বক্তারা মাদকের ক্ষতিকর দিকগুলো তুলে ধরেন এবং মাদক মুক্ত সমাজ গড়ার জন্য পরিবারের পিতামাতা থেকে সমাজের সর্বস্তরের জনগণকে ভূমিকা রাখার জন্য আহব্বান জানান। বক্তরা বলেন যে, কারিতাস প্রচেষ্ঠা প্রকল্প তাদের কার্যক্রমের মাধ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সচেতনতা সংঘ গঠনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠান ধুমপান মুক্ত করছেন, ছাত্র/ছাত্রীদের মাদকের ক্ষতিকর দিক নিয়ে সচেতন করছেন, কাউন্সিলিং করছেন। মাদক প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলার পাশাপাশি প্রশাসনকে সহযোগিতা করতে হবে। কারিতাস প্রচেষ্টা প্রকল্প ইনচার্জ জনাব ফরিদ আহাম্মদ খান বলেন যে, মাদকের চাহিদা কমানোর জন্য নানামুখী সচেতনতামূলক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করতে হবে, ছাত্র/ছাত্রীদের লেখা পড়ার পাশাপাশি সুস্থ বিনোদন ও খেলা ধুলার আয়োজন করা খুবই প্রয়োজন। মাদকের ছোবলে যুব সমাজ ধবংস হয়ে যাচ্ছে। মোসা: কামরুন্নাহার বলেন যে, প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আগামী জানুয়ারী ২০২০ খ্রি: এর মধ্যে ধুমপান মুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঘোষনা করার জন্য শিক্ষকদের প্রতি আহবান করেন। তিনি উল্লেখ করে বলেন যে, মাদকাসক্তের প্রথম যাত্রা শুরু হয় সিগারেট হতে। পরিবারের সদস্যদেও প্রতি উল্লেখ করে বলেন যে, সন্তানের সামনে সিগারেট না খাওয়া, সন্তানদের প্রতি খোজ খবর রাখা। দিনে কমপক্ষে একবার হলেও পরিবারের সবাইকে নিয়ে এক সাথে খেতে বসা। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র/ছাত্রীদের নিয়ে নৈতিকতা শিক্ষা বেশী কওে দেয়া। মাদক যদি একবার কাউকে ধরে সে মাদক ছাড়তে চাইলেও মাদক তাকে ছাড়েনা। প্রধান অতিথি বলেন যে, মাননীয় প্রধান মন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষনা করেছেন। প্রশাসন কাউকে ছাড় দিচ্ছেনা। আমরা মাদকের বিরুদ্ধে যোদ্ধ ঘোষনা করেছি। আমরা সোনার বাংলা গড়ছি, যুব সমাজ মাদকে ধবংস হয়ে গেলে সোনার বাংলার হাল ধরবে কে? তাই মাদক থেকে দূরে থাকার জন্য তিনি সবাইকে আহবান করেন। তিনি শিক্ষকদের প্রতি আহবান করে বলেন যে, ছাত্র/ছাত্রীদেরকে জন্য সৃজনশীল চিত্ত বিনোদন, খেলাধুলার ব্যবস্থা রাখা। সন্তানের প্রতি অভিভাবকদের সচেতন হওয়া। তিনি উল্লেখ করে বলেন যে, মাদকের বিরুদ্ধে সবাইকে স্বোচ্চার হতে হবে। আলোচনা শেষে কারিতাস প্রচেষ্টা প্রকল্প হতে সকল অংশগ্রহণকারীর হাতে একটি করে কলম তুলে দেন। উল্লেখ যে, কারিতাস ঢাকা অঞ্চলের অধীনে পরিচালিত প্রচেষ্টা প্রকল্প ২০১০খ্রি: হতে শহর ও উপশহর এলাকার দরিদ্র ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে কাজ করে আসছে। বিশেষ কওে মাদকাসক্ত, যৌনকর্মী, পথ শিশু, বস্তিবাসী, যুবক এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র/ছাত্রীদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছে। প্রচেষ্টা প্রকল্পের আওতাধী বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র/ছাত্রীদেও নিয়ে সচেতন সংঘ গঠনের মাধ্যমে সামাজিক সচেতনতামূলক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। উপস্থিতি সকলে কারিতাস প্রচেষ্টা প্রকল্পের কার্যক্রমে সংহতি প্রকাশ করেন।

Please follow and like us:
error

About jahir

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মিথিলার পথে হাঁটছে তার ছোট বোন!

এই সময়ের আলোচিত অভিনেত্রী রাফিয়াথ রশিদ মিথিলার পথে হাঁটছে তার ছোট বোন ...