Breaking News
Home / Uncategorized / অবশেষে ঝালকাঠিতে ১৩ বছর বয়সী এক কিশোরীকে অপহরণের পর ১৯ দিন আটকে রেখে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা !

অবশেষে ঝালকাঠিতে ১৩ বছর বয়সী এক কিশোরীকে অপহরণের পর ১৯ দিন আটকে রেখে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা !

 

মো:নজরুল ইসলাম,ঝালকাঠি প্রতিনিধি:: ঝালকাঠিতে ১৩ বছর বয়সী এক কিশোরীকে অপহরণের পর ১৯ দিন আটকে রেখে ধর্ষণের ঘটনায় আওয়ামী লীগ নেতার ছেলেসহ দুইজনের নামে মামলা হয়েছে। শনিবার রাতে ঝালকাঠি থানায় নির্যাতিত কিশোরীর মা বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

মামলার আসামিরা হলেন- সদর উপজেলার নবগ্রাম ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আমজেদ থলপহরীর ছেলে সাবেক ইউপি সদস্য এমদাদ থলপহরী ও ধর্ষণের ঘটনা মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণকারী বর্ষা আক্তার। পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান শুরু করেছে। ভিডিওটি ক্লিপটি জব্দের চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ঝালকাঠি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খলিলুর রহমান।

মামলার বিবরণে জানা যায়, গত ৮ নভেম্বর সদর উপজেলার বাউকাঠি গ্রামের বাড়ি থেকে পিপলিতা গ্রামে ফুপুর বাড়িতে বেড়াতে যাওয়ার পথে এমদাদুল থলপহরী কিশোরীকে জোর করে স্থানীয় একটি বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ ঘটনা এমদাদুলের আত্মীয় বর্ষা আক্তার নামে একটি মেয়ে মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে। এমাদুল ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার কথা বলে একাধিকবার কিশোরীকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলে ১৫ নভেম্বর এমাদুল ওই কিশোরীকে অপহরণ করে বাকেরগঞ্জের বোয়ালিয়া গ্রামে এক নারীর বাসায় আটকে রাখে এবং সেখানেই তাকে নিয়মিত ধর্ষণ করা হতো। এমনকি ওই নারী অন্য পুরুষ এনে কিশোরীকে নির্যাতন করাতো।

গত ৫ ডিসেম্বর মেয়েটি সেখান থেকে কৌশলে পালিয়ে বাড়িতে চলে আসে। বিষয়টি পুলিশকে জানায় সে। পরে প্রভাবশালী সাবেক ইউপি সদস্য মামলা না করার জন্য নির্যাতিত ওই পরিবারকে চাপ দেয়। তাদের ভয়ে থানায় মামলা করতে ও মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছিল না ধর্ষণের শিকার ওই পরিবার। ঘটনাটি গণমাধ্যমে প্রচার ও প্রকাশিত হলে টনক নড়ে পুলিশের। রাতে নির্যাতিত কিশোরীর মাকে থানায় ডেকে এনে মামলা লিপিবদ্ধ করা হয়।

মামলার বাদী নির্যাতিত ওই কিশোরীর মা বলেন, আমরা থানায় যাওয়ার সাহস পাচ্ছিলাম না। পরে ওসি সাহেব আমাদের থানায় ডেকে পুরো ঘটনা শুনে মামলা নিয়েছেন।

ঝালকাঠি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খলিলুর রহমান বলেন, মামলাটি লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চলছে। ধর্ষণের ঘটনার ভিডিও উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। আসামিরা যতই প্রভাবশালী হোক তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

Please follow and like us:
error

About jahir

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

প্রতিদিন জ্যামে আটকে থাকে লাখ লাখ যাত্রী নোয়াখালী-কুমিল্লা মহাসড়কে ফোর লেনের কাজের ধীরগতি, যাত্রীদের ভোগান্তি চরমে

নোয়াখালী-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের বেহাল দশা। ৫৯ কিলোমিটারের মধ্যে প্রায় ৯০ ভাগ সড়কে ...