Breaking News
Home / এক্সক্লুসিভ ডেস্ক / যমুনায় ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল

যমুনায় ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল

 

মো: নাসির উদ্দিন, ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে যমুনার চরাঞ্চলে শুষ্ক মৌসুমে যাতায়াতের একমাত্র অবলম্বন ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল। এ অঞ্চলে বেহাল যোগাযোগ ব্যবস্থাই এমন চিত্রের কারণ বলে জানা গেছে।

সরেজমিনে উপজেলার গাবসারা ও অর্জুনা ইউনিয়নের চরাঞ্চলে গিয়ে এমন চিত্র দেখা গেছে। চর ও নদী এলাকার যেসব গ্রামে শুষ্ক মৌসুমে মাইলের পর মাইল মোটরসাইকেলে যাতায়াত করছেন স্থানীয়রা।

জানা যায়, বঙ্গবন্ধু সেতু হওয়ার পূর্বে যমুনা নদীতে জাহাজ ও লঞ্চসহ অন্যান্য নৌপথের পরিবহন ছিল যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম। কিন্তু কালের বিবর্তনে প্রমত্তা যমুনা তার যৌবন হারিয়ে এখন মৃত প্রায়। নদীর গতিপথ পরিবর্তন হয়ে একদিকে যেমন বাস্তুহারা করছে চরের মানুষকে অন্যদিকে শুষ্ক মৌসুমে যমুনা মরা খালে পরিণত হচ্ছে। উপজেলার ২টি ইউনিয়নের চরাঞ্চলে প্রায় লক্ষাধিক মানুষের বসবাস। স্কুল, মাদরাসা, হাসপাতাল, ব্যাংক-বীমা, কমিউনিটি সেন্টার, এনজিও প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মরত লোকজন প্রতিদিন চরাঞ্চলে যাতায়াত করে। এসব মানুষের যাতায়াতের একমাত্র অবলম্বন মোটরসাইকেল। তবে চরের অনেক মানুষ এখনও পায়ে হেঁটেই বিশাল বিশাল চর পাড়ি দেয়।

যমুনার চরাঞ্চলের মো. লালচান বেপারী জানান, নদীর পানি শুকিয়ে গেছে। নৌকা চলাচল বন্ধ। গোবিন্দাসী ফেরী ঘাটে পায়ে হেঁটে যেতে প্রায় ঘন্টা খানেক সময় লাগে। কিন্তু মোটরসাইকেলে গেলে ১০ থেকে ২০ মিনিটে যেতে পারি বাড়ি থেকে। ভাড়ার বিষয়ে জানতে চাইলে মো. লালচাঁন বেপারী জানান, গোবিন্দাসী ঘাট থেকে দূরত্ব অনুযায়ী নির্ধারিত ভাড়া আবার কখনো বেশীও নেয়। মেঘারপটল গ্রাম থেকে ঘাটে মোটরসাইকেল ভাড়া ৭০-১০০ টাকা লাগে। মোটরসাইকেল যাতায়াতের জন্য যেমন সুবিধা হয়েছে এ চরাঞ্চলবাসীর অন্যদিকে ডাকাতের হাতে পরার আতঙ্কও রয়েছে।

মোটরসাইকেল যাত্রী আব্দুল জলিল জানান, যাতায়াতের জন্য অনেক সুবিধা হয়েছে বিকল্প ভাড়ায় চালিত যানবাহনের জন্য। তবে এটা সারা বছরই নয়। সাধারণ প্রায় ৬ মাস নদীর বুকে এসব যানবাহন চলাচল করে। ভোর সকাল থেকে রাত মধ্যরাত পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচল করে।

গাবসারা ইউনিয়নের রুলীপাড়ার মোটরসাইকেল চালক আয়নাল হক বলেন, সংসারে তাদের তিন সন্তান রয়েছে। মোটরসাইকেল চালানো তার পেশা। আগে তারা ইট ভাটায় কাজ করেছেন। এখন তিনি প্রতিদিন সাইকেল চালিয়ে ১ হাজার থেকে ১ হাজার ৫’শ টাকা আয় করেন।

ক্যাপশনঃ ছবিটি গতকাল শুক্রবার যমুনার চরাঞ্চলের রুলীপাড়া নৌকা ঘাট থেকে তোলা হয়েছে।
ছবিঃ ঢাকা প্রতিদিন, প্রতিনিধি, ভূঞাপুর।

 

 

Please follow and like us:
error

About jahir

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মহিলারা কোন ধরনের ছেলেদের সাথে পরকিয়া করে!

কথায় আছে ‘মেয়েদের মন নাকি ঈশ্বর ও বুঝতে পারেন না’। মেয়েরা কখন ...