Breaking News
Home / হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান ধর্ম / অনেক জন্ম লাগবে ভগবানও নিশ্চিত নয়

অনেক জন্ম লাগবে ভগবানও নিশ্চিত নয়

উজ্জ্বল রায় নিজস্ব প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণ বিশ্বাস করলেন না, তিনি বললেন-আপনার সাথে যখন ভগবানের দেখা হল, তখন তিনি কি করছিলেন? নারদমুনি-তিনি একটি সূচের ছিদ্র দিয়ে একটি হাতিকে একদিক দিয়ে প্রবেশ করিয়ে অন্য দিক দিয়ে বের করছিলেন। নারদ মুনির এই কথা শুনে ব্রাহ্মণ হেসে ফেলল বলল”এসব কি আবোল তাবোল বলছেন আমি ঠিক বুঝতে পারছি না। সূচের ছিদ্রপথ দিয়ে কি হাতিকে প্রবেশ করানো সম্ভব? এসব যুক্তিহীন কথা আমি বিশ্বাস করতে পারছি না।” এই সব গালগল্প , রুপকথার ঠাকুরমার ঝুলির মত গল্প বলছেন। আমি কি এতই বোকা?”ব্রাহ্মণের কথা শুনে নারদ মুনি বুঝতে পারলেন, এই ব্যক্তি কেবল পুঁথিগত জ্ঞানেই পন্ডিত, কিন্তু ভগবানের প্রতি তার আন্তরিক শ্রদ্ধা বা বিশ্বাস নেই। এরপর নারদ মুনির সাথে সেই মুচির দেখা হল। সে একটি বিরাট বটগাছের নিচে বসে তার কাজ করছিল। নারদ মুনিকে দর্শণ করেই তাঁকে প্রণাম করে জানতে চাইল, “হে প্রভু, আপনার সাথে কি পরমেশ্বর ভগবানের সাক্ষাৎ হয়েছিল? তিনি তখন কি করছিলেন?” নারদ মুনি মুচিকেও সেই একই জবাব দিল। নারদ মুনির এই কথা শুনে মুচি আনন্দে উচ্ছ্বাসিত হয়ে বলে উঠল, “আহ! ভগবানের কতই না লীলার প্রকাশ। তিনি সর্বশক্তিমান। তিনি আমাদের চিন্তার অতীত লীলার প্রকাশ ঘটিয়ে আমাদের আনন্দ বিধান করেন।” নারদ মুনি তখন মুচির কাছে জানতে চাইলেন, “তুমি তাহলে বিশ্বাস কর যে, ভগবান একটি সূচের মধ্যে দিয়ে একটি হাতিকে প্রবেশ করাতে পারেন?” “কেন নয়? উনার শক্তি অচিন্ত্য, উনি ইচ্ছা করলেই সব পাড়েন। আমারদের চিন্তার অতীত। আমি তা অবশ্যই বিশ্বাস করি।” মুচি জবাব দিল।
নারদ মুনি তখন হৃদয়ঙ্গম করলেন কেন ভগবান নারায়ন বলছিলেন যে, মুচি এ জন্মেই দেহত্যাগের পর বৈকুন্ঠপ্রাপ্ত হবে আর সেই বাহ্যিকভাবে নিষ্ঠাবান ব্রাহ্মণের কেন জন্মে জন্মে মুক্তি লাভ হবে না। মুচির কথা শুনে নারদ মুনি ভাবলেন যে এই হচ্ছে ভগবানের প্রতি প্রকৃত ভালবাসা এবং বিশ্বাস।
ভগবান বিশ্বাস ও ভক্তি দেখেন, জাত নয়
একদিন নারদ মুনি  যখন কোন একটি পথ দিয়ে যাচ্ছিলেন তখন এক বিজ্ঞ ব্রাহ্মণের সঙ্গে তার পরিচয় হল। ব্রাহ্মণ প্রতিদিন তিন বেলা স্নান করেন এবং তার আচার আচরণ সমস্ত কিছুই অত্যন্ত সুন্দর। ব্রাহ্মণ নারদমুনিকে প্রশ্ন করলেন,
“হে মুনিবর, আপনি নিশ্চয়ই ভগবান নারায়নের কাছে চলেছেন?”আপনি কি দয়া করে তার কাছে জানতে পারবেন যে, “কবে আমি মুক্তি লাভ করতে পারব?”নারদ মুনি বললেন, “ঠিক আছে”।এরপর পথে যেতে যেতে নারদ মুনির সাথে এক মুচির দেখা হল।নারদ মুনিকে দর্শন করে মুচি জানতে চাইল, “প্রভু, আপনি কি বৈকুন্ঠে পরম প্রভু স্বয়ং নারায়ণের কাছে যাচ্ছেন?”নারদ মুনি বললেন, “হ্যাঁ ” তা শুনে মুচি বিনীতভাবে নারদমুনিকে অনুরোধ করল, “তাহলে প্রভু, আপনি কি কৃপা করে আমার হয়ে তার কাছে জিজ্ঞাসা করবেন যে, কবে আমি এই জন্ম মৃত্যুর বন্ধন থেকে মুক্তি লাভ করব?” নারদ মুনি তাকেও কথা দিলেন, “ঠিক আছে, আমি তোমার এই প্রশ্নের উত্তর জেনে আসব।” এবারে নারদ মুনি বৈকুন্ঠে পৌছে ভগবান নারায়ণের সাথে সাক্ষাৎ করে বিদায় নেয়ার সময় ভগবানের কাছে সেই ব্রাহ্মণ ও মুচির জিজ্ঞাসিত প্রসঙ্গটি উত্থাপন করে জানতে চাইলেন, “হে ভগবান, আমি বৈকুন্ঠে আসার পথে এক পন্ডিত ব্রাহ্মণ ও এক মুচি আমাকে আপনার থেকে এই প্রশ্নের উত্তর জেনে যেতে বলেছেন যে, “তারা কবে তাদের জাগতিক বদ্ধ অবস্থা থেকে মুক্তি প্রাপ্ত হবে? এখন আপনি বলুন তাদেরকে আমি কি উত্তর দেব?” পরমেশ্বর ভগবান তো অন্তর্যামী তিনি সবার মনের ভাব বুঝেন,  স্মিত হেসে বললেন, “ও আচ্ছা এই কথা! মুচি এই জন্মেই শরীর ত্যাগের পর আমার কাছে এই বৈকুন্ঠে চলে আসবে। এবং সেই পন্ডিত ব্রাহ্মণ, তাকে সেখানে আরও অনেক জন্ম থাকতে হবে ।”স্বয়ং নারায়ণের কাছে এই উত্তর শুনে নারদ মুনি অবাক হলেন। তিনি মনে মনে ভাবলেন, “একজন মুচি, সে এই জন্মে বৈকুন্ঠ ধাম প্রাপ্ত হবে। আর এ ব্রাহ্মণ, যাকে কিনা, আমার নিষ্ঠাবান মনে হল, সে কবে মুক্তি লাভ করবে তার কোন ঠিক নেই।” নারদ মুনি বললেন , “হে প্রভু আপনি বলেছেন মুচি এই জন্মেই বৈকুন্ঠ ধাম প্রাপ্ত হবে, কিন্তু ব্রাহ্মণের বেলায় তা হবে না এটাতো অন্যায় , সেই ব্রাহ্মণ অনেক শাস্ত্র পড়েছেন, অনেক পন্ডিত আর মুচি তো অশিক্ষিত , তবুও উনি আগে কেন? আমি এই রহস্য কিছুতেই বুঝতে পারছি না।” নারদ মুনির প্রশ্ন শুনে নারায়ণ স্মিত হেসে জবাব দিলেন, “ তুমি তাদের এই কথাটা  বলবে যে, ভগবান তাঁর ধামে বসে একটি সূচের ছিদ্র দিয়ে একটি হাতিকে একবার প্রবেশ করিয়ে বিপরীত দিক দিয়ে বাহির করছিলেন।” নারদমুনি বললেন, “ঠিক আছে।” এবার নারদ মুনি যখন মর্তে ফিরে আসলেন এবং সেই ব্রাহ্মণের সাথে দেখা হল। ব্রাহ্মণ তাঁকে জিজ্ঞাসা করল, “কতদিনে  আমি মুক্তি লাভ করব?” নারদমুনি বলল অনেক জন্ম লাগবে। ভগবানও নিশ্চিত নয়। উজ্জ্বল রায় নিজস্ব প্রতিনিধি। ছবি সংগৃহীত……….
Please follow and like us:
error

About jahir

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বামন অবতার শুক্লপক্ষের দ্বাদশী তিথিতে বামনদেবের আবির্ভাব!!

উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধিঃ বামন অবতার শুক্লপক্ষের দ্বাদশী তিথিতে বামনদেবের আবির্ভাব। ...