Breaking News
Home / Uncategorized / কবে ঘুরবে বিমানবন্দরের বন্ধ সিঁড়ি, জানেন না কেউ!

কবে ঘুরবে বিমানবন্দরের বন্ধ সিঁড়ি, জানেন না কেউ!

রাজধানীর বিমানবন্দরের ফুটওভার ব্রিজের চলন্ত সিঁড়ি দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকায় বিপাকে পড়েছেন হাজারো মানুষ। বাধ্য হয়ে পথচারীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ফুটওভার ব্রিজের নিচ দিয়ে রাস্তা পার হচ্ছেন। কবে এই সিঁড়ি সচল হবে তা নির্দিষ্ট করে বলতে পারছেন না কেউ।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের সামনে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ওপর ফুটওভার ব্রিজের চলন্ত সিঁড়ি দুটি বন্ধ। পথচারীরা পায়ে হেঁটে ওভার ব্রিজ পার হচ্ছেন। সিঁড়ি বন্ধ থাকায় বয়স্ক ও অসুস্থ্য মানুষদের অনেক কষ্ট করে রাস্তা পার হতে হচ্ছে। এদিকে, পথচারীদের চাপ বাড়ার কারণে সিঁড়ির দুই পাশে লাইন ধরে পার হচ্ছেন মানুষ।

পথচারীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ফুটওভার ব্রিজটি চালু হওয়ার ৩ থেকে ৪ মাস পরই বন্ধ হয়ে যায় চলন্ত সিঁড়িটি। এমনকি এটি দেখা শোনারও কেউ নেই। সিঁড়িটি চালু হওয়ার পর বৃদ্ধ নারী-পুরুষ ও শিশুদের চলাচলের সুবিধা হয়েও এটি বন্ধ হওয়ায় পথচারীরা বাধ্য হয়ে অনেক সময় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা দিয়েই পার হচ্ছেন।

বন্ধ সিঁড়ির বিষয়ে জানতে চাইলে দক্ষিণ খানের বাসিন্দা পথচারী রবিউল ইসলাম ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, চলন্ত সিঁড়ির ফলে বয়স্ক নারী-পুরুষদের চলাচলের সুবিধা ছিল। কিন্তু এ সিঁড়ি বন্ধ হওয়ার কারণে বয়স্ক নারী-পুরুষের রাস্তা পারাপারে সমসস্যা হচ্ছে। কারণ খাড়া সিঁড়ি বেয়ে ওপড়ে ওঠা-নামা খুবই কষ্টকর।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিমানবন্দরে দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশের এক কর্মকর্তা ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, এখানে দায়িত্ব পালন করা অনেক চ্যালেঞ্জ। একদিকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, অন্যদিকে উত্তরখান, দক্ষিণ খান, আশকোনাসহ বিভিন্ন এলাকার হাজার হাজার মানুষ এ রাস্তাটি ব্যবহার করেন। ফুটওভার ব্রিজটি নষ্ট থাকায় পথচারীদের পারাপারের অনেক সমস্যা হচ্ছে। অনেকেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সড়কে পায়ে হেঁটেই রাস্তা পার হতে চায়। আমরা যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করবো, না পথচারীদের পারাপারে সহযোগিতা কবরো?

ফুটওভার ব্রিজের চলন্ত সিঁড়িটি কবে সচল হবে জানতে চাইলে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) শরীফ উদ্দিন ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না। আপনি তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোহাম্মাাদ আরিফুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। পরে তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোহাম্মাদ আরিফুর রহমানের নম্বরে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি

Please follow and like us:
error

About jahir

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ইনিংস ব্যবধানে জয়ের সুবাস পাচ্ছে বাংলাদেশ

সফরকারী জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের একমাত্র টেস্টে ৫৬০ রানে ইনিংস ঘোষণা করেছে বাংলোদেশ। ...