Breaking News
Home / ঢাকা চট্টগ্রাম সহ বাংলাদেশের সকল ক্যাম্পাস / জাবির শহীদ-রফিক জব্বার হলে বাঁধনের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত

জাবির শহীদ-রফিক জব্বার হলে বাঁধনের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত

জাবি প্রতিনিধি:

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি)তে বাঁধন শহীদ-রফিক জব্বার হল ইউনিটের আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের নবীন ব্যাচকে বরণ করে নেওয়া হয়।

রবিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) রাত ০৮ টায় হলের কমনরুমে নবীনবরণ অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৮ তম ব্যাচকে ফুল ও বাঁধনের চাবির রিং দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়।

নবীনবরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বাঁধনের কার্যক্রম সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বাঁধন কর্মীরা বর্ণনা করেন ও বাঁধন সম্পর্কে লিফলেট বিতরণ করা হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন হলের আবাসিক শিক্ষক, হলের ছাত্রনেতা, বাঁধনের হল উপদেষ্টা, জোন উপদেষ্টা, বাঁধন জাবি জোনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ বিভিন্ন হলে থেকে আগত বাঁধনকর্মীরা।

বাঁধন সম্পর্কে হলের আবাসিক শিক্ষক সাজ্জাদ হুসাইন বলেন, তোমরা মানুষের জন্য রক্ত নিয়ে কাজ করো। রক্তের জন্য মানুষ কতটা অসহায় হয় এটা তখনই বোঝা যায় যখন কারো নিজেদের প্রয়োজন হয়। আমি তোমাদের কাজের সফলতা কামনা করি।

বাঁধনের কার্যক্রম সম্পর্কে ছাত্রলীগ নেতা বায়োকেমিস্ট্রি এন্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের সাজ্জাদ বলেন, বাঁধন এমন সংগঠন যারা নিজেদের সময় ও অর্থ ব্যয় করে মানুষের জন্য রক্ত সংগ্রহ করে। আমরা তাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করে যাবো সমসময়।

বাঁধনের কার্যক্রম সম্পর্কে ছাত্রলীগ নেতা নৃবিজ্ঞান বিভাগের সাব্বির বলেন, বাঁধনের কার্যক্রমের মাধ্যমে বাঁধন কর্মীরা নিজেদের মেধা ও শ্রম দিয়ে মানুষের জীবন বাঁচাতে কাজ করে যাচ্ছে। তাদের এই কাজের সফলতা কামনা করি। তারা যেনো মানুষকে আরো বেশি সহযোগিতা করতে পারে। আমরা ছাত্রলীগ থেকে আগেও সহযোগিতা করেছি এবং সামনের দিনগুলোতে তাদের সহযোগিতা করে যাবো।

বাঁধনের কার্যক্রম সম্পর্কে ছাত্রলীগ নেতা বাংলা বিভাগের আল আমিন বলেন, একজন মানুষ কেবল নিজের কারো রক্তের প্রয়োজন হলেই বুঝতে পারে রক্ত কত অমূল্য বস্তু। বাঁধন কর্মীরা তাদের গুরুত্বপূর্ণ সময় দিয়ে এই কাজ করে যাচ্ছে। তারা রাত দিন যেকোন সময় রক্তের জন্য কাজ করে যায়। আমি তাদের কাজে সহযোগিতা ও তাদের সফলতা কামনা করি।

এসময় বাঁধন জাবি জোনের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসিব বলেন, বাঁধন এমন একটি সংগঠন যারা স্বেচ্ছায় নিজে রক্ত দেয় এবং অন্যকে রক্ত সংগ্রহ করে দেয়। এই কাজে আমরা সবসময় ছাত্রলীগের সহযোগিতা পেয়ে আসছি। আমি এই হলের বাঁধনের কার্যক্রমে সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

এসময় বাঁধনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জোনাহিদ চকদার বলেন, বাঁধন সম্পর্কে আপনারা সবাই কম বেশি অবগত আছেন। বাঁধনের কাজ রক্ত নিয়ে। এখানে কর্মীরা স্বেচ্ছায় নিজে রক্ত দেয় অন্যকে রক্ত সংগ্রহ করে দেয়। মানুষের জন্য কাজ করতে আমরা এই হলের বাঁধন ইউনিটের সফলতা কামনা করি।

নবীনবরণ অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ছিলেন ছাত্রলীগ কর্মী খন্দকার নাসির উদ্দিন, শৌনক কিশোর রয় ও বাঁধনকর্মী আশরাফুল ইসলাম।

Please follow and like us:
error

About jahir

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

করেনা আতঙ্কে ২ এপ্রিল পর্যন্ত জাবি বন্ধ ঘোষনা

জাবি প্রতিনিধি: করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আতঙ্কে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) আগামী বুধবার (১৮ ...