বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০২:১৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
সাদা ফুলের বর্ণিল সাজে সেজেছে আত্রাইয়ের সজিনা গাছগুলো ভারতীয় রিএসএফ এ দেশের ভেতর ঢুকে সীমান্তে বাংলাদেশী হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমনের প্রতিবাদ স্ত্রী প্রসঙ্গে নাসির, ‘আমার ভয় লাগছে ওকে নিয়ে’ বনানীতে পিলখানার শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা বাগেরহাটে মোরেলগঞ্জে  ঘেরের ভেড়িতে করলা চাষে লাভবান কৃষকের মুখে মিষ্টি হাসি জামালপুরে পৌর নির্বাচন নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সংবাদ সম্মেলন পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের জন্য সুখবর ৭ কলেজের পরীক্ষা চলবে, আন্দোলন প্রত্যাহার আজ পিলখানা হত্যাকাণ্ডের এক যুগ ফেনীতে খাবার ফ্যাক্টরিতে ভয়াবহ আগুন মেয়েদের শরীরের ৭টি স্থান বড়ই ‘টার্ন অন’ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্ত সেতুর অভাবে দুর্ভোগে মানুষ তানোরের বাধাইড় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার বেতাগী উপজেলার ভূমি অফিস পরিদর্শনে বরিশালের ডিএলআরসি: কর্মকর্তা-

৭ নভেম্বরের রহস্য উদ্ঘাটনে বিচারবিভাগীয় কমিশনের দাবি

 

জাতীয় রাজনৈতিক ইতিহাস পর্যালোচনা করে ৭ নভেম্বর ১৯৭৫ সালেল ঘটনা প্রবাহের সঠিক ইতিহাস দেশ-জাতি ও আগামী প্রজন্মকে সত্য পটভূমি জানাতে বিচারবিভাগীয় কমিশন গঠন করা সময়ের দাবি হয়ে উঠেছে।
শুদ্দক্রবার (১ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাব তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে ‘৭ নভেম্বর ১৯৭৫; প্রচার ও অপপ্রচার’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় এমন দাবি করেন। আলোচনা সভার আয়োজন করেন বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্ট ফোরাম (বোয়াফ)।

বক্তারা বলেন, বাংলাদেশের রাজনীতিতে সবচেয়ে সমালোচিত ও বিতর্কিত দিন ৭ নভেম্বর। ১৯৭৫ সালের এইদিনের ঘটনা জাতীয় রাজনীতিতে যে ওলটপালট শুরু হয়েছিল, তার রেশ থেকে জাতি আজও মুক্ত হতে পারেনি, কলঙ্কমুক্ত হয়নি বাংলাদেশের রাজনীতিও। বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে ৭ নভেম্বর একটি রহস্যময় অধ্যায় হয়ে আছে।

তাঁরা আরও বলেন, ৪৩ বছর পর আজও বিষয়টি সম্পর্কে আমাদের ধারণা পরিচ্ছন্ন ও পরিপূর্ণ নয়। ৭ নভেম্বরকে এখন আর কেউ বিপ্লব বলে না। জাসদের ‘সিপাহি জনতার বিপ্লব’ এবং বিএনপির ‘জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ সময়ের ব্যবধানে আর সঠিক ইতিহাসের অগ্রপথে ফিকে হয়ে গেছে।

অতিথিবৃন্দ আরও বলেন, ৭ নভেম্বরের রহস্য উদঘাটন করতে রাজনৈতিক ইতিহাস পর্যালোচনা, বিচার-বিশ্লেষণ ও মুল্যায়ন করা; সময়ের অন্যতম দাবি হয়ে উঠেছে। বাংলাদেশের রাজনীতিকে কলঙ্কমুক্ত করতে এবং দেশ-জাতি ও আগামী প্রজন্মকে ৭ নভেম্বর ১৯৭৫ সালের ষড়যন্ত্রের মুখোশ উন্মোচন করতে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিশন গঠন করা উচিত।

সংগঠনের সভাপতি কবীর চৌধুরী তন্ময়ের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও সংসদ সদস্য-মুক্তিযোদ্ধা মুহম্মদ শফিকুর রহমান, নিরাপত্তা বিশ্লেষক ও কলাম লেখক মেজর জেনারেল (অব.) আবদুর রশীদ, এশিয়া প্যাসিফিক ইউনিভার্সিটির কোষাধ্যক্ষ ও বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর সাবেক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা-এয়ার কমোডর (অব.) ইশফাক ইলাহী চৌধুরী, খালেদ মোশাররফের জ্যেষ্ঠ কণ্যা ও সাবেক সংসদ সদস্য-মাহজাবিন খালেদ, কবি ও লেখক-সোহরাব হাসান, বীর মুক্তিযোদ্ধা জহির উদ্দিন জালাল (বিচ্ছু জালাল), সাংবাদিক মাহবুব কামাল, সার্জেন্ট সায়েদুর রহমানের পুত্র-মো. কামরুজ্জামান মিয়া, চাকুরী থেকে বরখাস্ত-করপোরাল আবদুল আউয়াল, মুক্তিযোদ্ধা সায়িদ মহিউদ্দিন হায়দার, সেক্টর কমান্ডার বীর উত্তম লে. কর্ণেল আবু ওসমানের মেয়ে-নাছিমা ওসমানসহ আরও অনেকে।

ফেসবুক লাইভ ও অনুষ্ঠান শেষে ছবি : fb.com/boaf.org.bd এবং fb.com/OfficialKabir

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38321879
Users Today : 2429
Users Yesterday : 3479
Views Today : 6669
Who's Online : 35
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/