বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০১:২৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ঈদের ছুটি নিয়ে বিভ্রান্তি লকডাউনের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে চান দোকানিরা যাত্রীর চাপ এবার আকাশপথে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা নিয়ে ঢাকা ছাড়ছেন কর্মহীনরা টিকা আনতে চীনে গেল বিমানবাহিনীর উড়োজাহাজ করোনায় দেশে মৃত্যু ছাড়ল ১২ হাজার বুধ নয়, এবার বৃহস্পতিবার থেকে ঈদের ছুটি পত্নীতলায় সরকারিভাবে চাউল ক্রয়ের উদ্বোধন বড়াইগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহের উদ্বোধন  শার্শায় ক্ষতিগ্রস্থদের ২৭টি পরিবারের মাঝে ঢেউটিন ও গৃহ নির্মাণ অর্থ বিতরণ বেনাপোল সীমান্ত থেকে ৫ টি পিস্তল ৭ রাউন্ড গুলি ও ১ টি ম্যাগজিন উদ্ধার  বাংলাদেশে ফিরতে না পেরে কলকাতায় ক্যান্সার আক্রান্ত শিশুর মৃত্যু রাজধানীতে ফুটপাতে পড়ে ছিলো ভিক্ষুকের লাশ ঢাকার পথে চীনের ৫ লাখ করোনার টিকা দিনে ফেরি চলাচলের অনুমতি দিল বিআইডব্লিউটিসি

গণমাধ্যমের প্রতি নাখোশ স্বাস্থ্যের ডিজি

ঢাকা: দেশে করোনা সংক্রমণের এক বছরেও আক্রান্তদের চিকিৎসায় স্বাস্থ্য খাতের সক্ষমতা বাড়েনি- গণমাধ্যম ও জনস্বাস্থ্যবিদের এমন পর্যবেক্ষণের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরে আয়োজিত এক ব্রিফিংয়ে তিনি দাবি করেন, সাংবাদিকদের নেতিবাচক প্রতিবেদনের কারণে চিকিৎসকরা করোনাবিরোধী যুদ্ধে মনোবল হারাচ্ছেন।

তিনি বলেন, কিছু কিছু পত্র-পত্রিকা এমনভাবে আমাদের সমালোচনা করছে, যেটাতে আমাদের মনোবলকে ভেঙে দিচ্ছে। সারা পৃথিবীতে এমন কোনো নজির নেই, যারা স্বাস্থ্যখাতে কাজ করেন তাদের মনোবল ভেঙে দেয়ার জন্য সমালোচনা করা হয়।

বসুন্ধরা আইসোলেশন সেন্টার বন্ধ করার সংবাদগণমাধ্যমে তুলে ধরার কারণে সাংবাদিকদের কড়া সমালোচনা করে মহাপরিচালক বলেন, বসুন্ধরা আইসোলেশন সেন্টারের যন্ত্রপাতি উধাও হয়নি, প্রয়োজন অনুসারে সারা দেশে বণ্টন করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ওই সময়ে প্রয়োজন না থাকায় এবং ব্যয় সংকোচন করার জন্য আইসোলেশন সেন্টার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল।

জনস্বাস্থ্যবিদরা তীব্র সংকটের মুহূর্তেও রোগীদের পাশে না দাঁড়িয়ে কেবল সমালোচনার বুলি আওড়াচ্ছেন অভিযোগ করে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক বলেন, আমাদের অনেক জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ আছেন; যারা একদিনও কোনো রোগীর পাশে গিয়ে দাঁড়াননি। তারা (জনস্বাস্থ্যবিদরা) এখন টেলিভিশন টকশোতে গিয়ে লম্বা লম্বা কথা বলেন। আপনারা হাসপাতালে রোগীর পাশে দাঁড়ান। সেটা না করে টেলিভিশনে গিয়ে নানা বিভ্রান্তিকর বক্তব্য দিচ্ছেন।

চিকিৎসকরা নানা চ্যালেঞ্জের মধ্য দিয়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছে দাবি করে মহাপরিচালক বলেন, ডাক্তার, নার্স, ওয়ার্ড বয়, আয়া ও পরিচ্ছন্নতাকর্মী গত এক বছর তারা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তারা মানসিক বৈকল্যে ভুগছেন। তারা অত্যন্ত চাপের মধ্যে আছেন। দিনের পর দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। এ সময়ে যদি আপনারা (সাংবাদিকরা) আমাদের বিরূপ সমালোচনায় মেতে থাকেন। তাহলে আমাদের সবার মানসিক অবস্থা কেমন দাঁড়াবে সেটা কি আপনারা ভেবে দেখেছেন?

Please Share This Post in Your Social Media


বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

https://twitter.com/WDeshersangbad

© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone