বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০১:৩০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ঈদের ছুটি নিয়ে বিভ্রান্তি লকডাউনের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে চান দোকানিরা যাত্রীর চাপ এবার আকাশপথে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা নিয়ে ঢাকা ছাড়ছেন কর্মহীনরা টিকা আনতে চীনে গেল বিমানবাহিনীর উড়োজাহাজ করোনায় দেশে মৃত্যু ছাড়ল ১২ হাজার বুধ নয়, এবার বৃহস্পতিবার থেকে ঈদের ছুটি পত্নীতলায় সরকারিভাবে চাউল ক্রয়ের উদ্বোধন বড়াইগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহের উদ্বোধন  শার্শায় ক্ষতিগ্রস্থদের ২৭টি পরিবারের মাঝে ঢেউটিন ও গৃহ নির্মাণ অর্থ বিতরণ বেনাপোল সীমান্ত থেকে ৫ টি পিস্তল ৭ রাউন্ড গুলি ও ১ টি ম্যাগজিন উদ্ধার  বাংলাদেশে ফিরতে না পেরে কলকাতায় ক্যান্সার আক্রান্ত শিশুর মৃত্যু রাজধানীতে ফুটপাতে পড়ে ছিলো ভিক্ষুকের লাশ ঢাকার পথে চীনের ৫ লাখ করোনার টিকা দিনে ফেরি চলাচলের অনুমতি দিল বিআইডব্লিউটিসি

গরমে সুস্থ থাকতে নিয়মিত খান ৭ ফল

পেট ঠাণ্ডা থাকলে শরীরের ভেতরও ঠাণ্ডা থাকবে। সারা দিন রোজা রাখার পর গরমে সুস্থ এবং প্রানবন্তর থাকতে প্রচুর পরিমাণ ফল ও পানি খাওয়া দরকার। অনেক সময় দেখা যায় গরমের জন্য সব রকমের খাবার সহজে হজম হয় না। সে কারণে আমাদের নানা ধরনের সমস্যা ভুগতে হয়।

আর তাই এই সময় পেট ঠাণ্ডা রাখা খুবই জরুরি। খাবার হজম ভালো হবে। হজম ভালো হলে বাড়বে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা।

চলুন তবে জেনে নেয়া এমন কিছু ফল সম্পর্কে যা গরমে শরীরকে সুস্থ এবং প্রানবন্তর করবে সে সম্পর্কে- 

কলা : সারা বছর আমাদের দেশে কলা পাওয়া যায়। তবে এটি গ্রীষ্মকালীন ফল হিসেবে বেশ উপযোগী ফল। খাওয়া যায় কাচা-পাকা দুটোই। শরীর থেকে অতিরিক্ত ঘামে যে তরল পদার্থ বের হয়ে যায়, পটাশিয়াম তা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে। যেটি রয়েছে কলার মধ্যে, তাই গরমে নিয়মিত কলা খান।

শসা : গ্রীষ্মের জনপ্রিয় সবজি হিসেবে খাদ্যতালিকায় শুরুর দিকে রাখতে পারেন শসা। ফসফরাস, জিংক, ক্যালসিয়াম ও অন্য বেশ কয়েকটি খনিজ পদার্থের ভালো উৎস হিসেবে বিবেচিত হয় শসা। এটি শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে শরীরকে ঠাণ্ডা রাখতে সাহায্য করে।

পেঁপে : পাকা পেঁপে কোষ্ঠ পরিষ্কার করে, বায়ু নাশ করে। বদহজমের রোগীরা পেঁপে খেলে উপকার পাবে। কাঁচা পেঁপের আঠা বীজ ক্রিমিনাশক ও যকৃতের জন্য ভালো।

ডাবের পানি : প্রাকৃতিক উপাদান সমৃদ্ধ মিনারেলস্, পটাশিয়াম সবকিছু মিলিয়ে উৎকৃষ্ট একটি পানীয় যা শরীরকে ঠাণ্ডা ও চাঙ্গা করে। ডাবের পানিতে আছে ল্যারিক অ্যাসিড যা আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। এছাড়া ওজন কমাতেও বেশ সহায়তা করে।

তরমুজ : গরমে আমাদের ক্লান্তি কাটাতে পারে তরমুজে, যার কোনো বিকল্প নেই। তরমুজের রস খেলে ত্বকের তারুণ্য ফিরে আসে। তরমুজে আছে ভিটামিন এ, বি২, বি৬, ই এবং ভিটামিন সি, এছাড়াও পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, বিটা ক্যারোটিন, অ্যান্টি অক্সিডেন্ট লাইকোপেন ইত্যাদি থাকলেও ক্যালোরির মাত্রা থাকে কম। যা আমাদের শরীরে পানির অভাব পূরণ করার পাশাপাশি শরীরকে ঠাণ্ডা রাখতে সাহায্য করে। এই ফল খেলে টাইফয়েড জ্বরে উপকার পাওয়া যায়।

বাঙ্গি : ততোটা আকর্ষনীয় ও লোভনীয় না হলেও পুষ্টিগুণের কারণে গ্রীষ্ম মৌসুমে খুব উপকারী ফল বাঙ্গি। এতে আছে কার্বোহাইড্রেট, ভিটামিন- বি৬, সি, কে, ফোলেট, ফাইবার, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম। এর শীতলকারক ও মূত্রবর্ধক বৈশিষ্ট্য রয়েছে বলে এটি দেহের পানিশূন্যতা দূর করার পাশাপাশি শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর করতে সাহায্য করে।

বেল : বেলের আছে অনেক গুণ। কাঁচা বেল পুড়িয়ে বা সিদ্ধ করে খেলে হজমশক্তি বাড়ে এবং সকালে খালি পেটে খেলে বায়ু ও পেটের অসুখ ভালো হয়।

Please Share This Post in Your Social Media


বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

https://twitter.com/WDeshersangbad

© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone