সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৩৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয় ‘হাসপাতালে ভর্তির ৫ দিনের মধ্যে মারা যাচ্ছেন ৪৮ শতাংশ করোনা রোগী’ ‘নিজের মাথার ওপর নিজেই বোমা ফাটানো’ এটা সম্ভব? মামুনুলের মুক্তি চেয়ে খেলাফত মজলিস নেতাদের হুশিয়ারি বাংলাদেশে করোনা টানা তৃতীয় দিনের মতো শতাধিক মৃত্যুর রেকর্ড চ্যালেঞ্জের মুখে টিকা কার্যক্রম! ৩৬ লাখ পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেবেন প্রধানমন্ত্রী হেফাজতের নাশকতা ঠেকাতে সর্বোচ্চ সতর্কতা মেয়াদহীন এনআইডি দিয়ে কাজে বাধা নেই স্ত্রী বাবার বাড়ি, মাঝরাতে পুত্রবধূকে ধর্ষণ করল শ্বশুর বিদ্যুতায়িত স্ত্রীকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল স্বামীর চট্টগ্রামে ভূমিকম্প শ্রমিক হত্যার মোড় ঘোরাতে মামুনুল নাটক : মোমিন মেহেদী ওসিকে জিম্মি করে তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এক হাজার টাকার চাঁদাবাজি মামলা  ! গাইবান্ধা পুলিশ কৃষি শ্রমিক পাঠালেন বগুড়ায়

ঘুষের টাকাসহ কর কর্মকর্তা গ্রেফতার

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) বগুড়া সমন্বিত কার্যালয়ের পাতানো ফাঁদে পা দিয়েছেন বগুড়া কর অঞ্চলের ১৫ সার্কেলের সহকারী কর কমিশনার অভিজিৎ কুমার দে। মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) দুপুরে নিজ কার্যালয়ে এক করদাতার কাছে ৫০ হাজার টাকা ঘুষ নেওয়ার সময় দুদক কর্মকর্তারা তাকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেন। বিকালে এ খবর পাঠানোর সময় তার বিরুদ্ধে দুদক আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

দুদক বগুড়া সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. মনিরুজ্জামান জানান, বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার ব্যবসায়ী ইউনুস আলী করদাতা। কর অঞ্চল বগুড়ার ১৫ সার্কেলে তার ফাইল আছে। তিনি ১৪/১৫ অর্থ বছরে কিছু সম্পত্তি বিক্রি করেন। ১৮/১৯ অর্থ বছরে আয়কর ফাইল থেকে বিক্রি করা জমি বাদ দিতে তিনি সহকারী কর কমিশনার অভিজিৎ কুমার দে’র কাছে যান। কিন্তু তিনি গত ৬ মাস ধরে ফাইলটি আটকে রেখে টালবাহানা করতে থাকেন।

একপর্যায়ে এ কাজের বিনিময়ে ৫০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন অভিযিৎ। করদাতা ঝামেলা এড়াতে ২০ হাজার টাকা দিতে চাইলেও কর কর্মকর্তা রাজি হননি। বাধ্য হয়ে ইউনুস আলী বিষয়টি দুদক কর্মকর্তাদের জানান।

মনিরুজ্জামান আরও জানান, তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে দুদক কর্মকর্তারা কর অফিসে ফাঁদ পাতেন। পরামর্শ অনুসারে ব্যবসায়ী ইউনুস আলী মঙ্গলবার সকালে দুদক কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ দেন। তিনি বেলা পৌনে ১টার দিকে অভিজিতের কাছে ঘুষের টাকা দেন। এ সময় দুদকের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে দুদক কর্মকর্তারা তাকে হাতেনাতে গ্রেফতার ও ড্রয়ার থেকে চিহ্নিত করা ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার করেন। অভিজিৎ টাকার ব্যাপারে সদুত্তর দিতে ব্যর্থ হন। অভিযানে দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক ওয়াহিদ মঞ্জুর সোহাগ, সুদীপ কুমার চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ প্রসঙ্গে বগুড়া ট্যাক্সেস ল’ইয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোখলেসুর রহমান বলেন, ‘কর অঞ্চল বগুড়ার ১৫ সার্কেলের সহকারী কর কমিশনার অভিজিৎ কুমার দে আগেও কয়েকবার ঘুষের টাকাসহ ধরা পড়েন। তাকে সতর্ক করা হলেও সংশোধন হননি। সংগঠনের পক্ষে রেজুলেশন করে কর কমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগও করা হয়েছিল।’

কর অঞ্চল বগুড়ার সদর দফতর (প্রশাসন) হাবিবুর রহমান বলেন, ‘বিষয়টি জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্যকে (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) জানানো হয়েছে। শিগগিরই তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

৫৭

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38451274
Users Today : 478
Users Yesterday : 1242
Views Today : 4040
Who's Online : 27
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone