রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ১১:৪২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
আদালতের রায় অমান্য করে সোনাগাজীর বগাদানায় সংখ্যালঘু পরিবারের ভূমি দখলের অভিযোগ বাশঁখালীতে যুবতীর ভাসমান লাশ উদ্ধার ‘ফিরতিযাত্রা’ নির্বিঘ্ন করার উপায় খুঁজছে সরকার গাজায় হত্যাযজ্ঞ নেতানিয়াহুকে ফোন করে সমর্থনের কথা জানালেন বাইডেন ঈদের দিন বায়তুল মোকাররমে ফিলিস্তিনি যুবকের বক্তব্য ভাইরাল (ভিডিও) অতিরিক্ত মদপানে রুমার মৃত্যু, ধারণা পুলিশের হেফাজতের নতুন আহ্বায়ক কমিটি জিডি ও এজহারের মধ্যে পার্থক্য জানেন কি? জুনের আগে মিলছে না নতুন ড্রাইভিং লাইসেন্স কারাগারে যেভাবে দিন কাটছে সেই ঐশীর বাংলাদেশে করোনা ২৪ ঘন্টায় আরও কমল মৃত্যু, শনাক্ত ২৬১ ডোমারে মুক্তিযোদ্ধার জমি দখলের চেষ্টা শিবগঞ্জে বন্ধন-৯৮ এর ঈদ পূনর্মিলনী তথাকথিত ধর্ম ও সমাজতান্ত্রিকরা রাষ্ট্রের জন্য ক্ষতিকর : মোমিন মেহেদী নওগাঁর মহাদেবপুরে এমপির সাথে নবগঠিত ডিজিটাল প্রেসক্লাবের সদস্যদের ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় ও কমিটি হস্তান্তর

দোকানপাট খোলার বিষয়ে বিশেষজ্ঞ পরামর্শ নেবে সরকার

পোশাক কারখানা খোলা এবং দোকানে আনাগোনা বেড়ে যাওয়ায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়েছে বলে মনে করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তবে জীবন ও জীবিকা একসঙ্গে চালিয়ে নিতে করোনা রোগী আর যা তে না বাড়ে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সে চেষ্টা করবে বলেও জানিয়েছেন মন্ত্রী।

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের কমিউনিটি ট্রান্সমিশন এবং এর পরিপ্রেক্ষিতে কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার লক্ষ্যে বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে গঠিত জাতীয় টেকনিক্যাল পরামর্শক কমিটির সভা শেষে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন। মঙ্গলবার (০৫ মে) সচিবালয়ে মন্ত্রীর সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আগামী দিনে সংক্রমণের হার নিয়ে এক প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, আমাদের মৃত্যু হার অন্যদেশের তুলনায় কম। সংক্রমণ কিছু বাড়ছে। গত ৮ থেকে ১০ দিনে ৪০০ থেকে ৫০০ করে, এরপর ৬০০, এখন ৭০০।

‘যেহেতু এখন মার্কেট খোলা হয়েছে, গার্মেন্টস খোলা হয়েছে, দোকানপাটে আনাগোনা বাড়ছে, কাজেই সংক্রমণ একটু বাড়বে, এটা আমরা ধরেই নিতে পারি। আমাদের যতটুকু সম্ভব নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। আমাদের জীবন এবং জীবিকা দুটোই একসঙ্গে চালিয়ে যেতে হবে। কাজেই সেভাবেই কাজগুলো করে যাচ্ছি। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় চেষ্টা করবে যাতে রোগী না বাড়ে। আমাদের ম্যান্টেড হবে যাতে রোগী সঠিক চিকিৎসা পায়। সঠিকভাবে রাখতে পারি।’

মন্ত্রী জানান, প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা বৈঠক করে টেকনিক্যাল কমিটির মতামত নিয়েছে মন্ত্রণালয়। আমরা তাদের পরামর্শ বাস্তবায়নের চেষ্টা করব।

‘লকডাউন তুলে দেওয়া এবং দোকানপাট খোলার বিষয়ে টেকনিক্যাল কমিটি যে সুচিন্তিত পরামর্শ দেবেন, সেগুলো আমরা গ্রহণ করে যথাযথ জায়গায় পৌঁছে দেব। তারপরে সরকারের যে নির্দেশনা থাকবে, সে অনুযায়ী কাজ করব।’

সভায় স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব মো. আলী নূর, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদসহ ১৭ সদস্য বিশিষ্ট সংশ্লিষ্ট কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

https://twitter.com/WDeshersangbad


বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone