সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০৭:৩৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ ১৬ কোটি ৩৭ লাখেরও বেশি মানুষের দেহে করোনা শনাক্ত গাজায় একদিনেই ৪২ জন নিহত রাজারহাটে ইউপি চেয়ারম্যান রবীনন্দ্রনাথ কর্মকারের বিরুদ্ধ প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহারের টাকা মারিং কাটিং করে খাওয়ার অভিযোগ। মাগুরায় অসাধু মাংস ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেটে অতিষ্ঠ সাধারণ ক্রেতা যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না সোমবার পুরো পরিবার শেষ, বাঁচল শুধু পাঁচ মাসের শিশুটি ২৯ মে পর্যন্ত বাড়লো প্রাথমিকের ছুটি নাড়ির টানে ঘরে ফেরা, পদ্মায় ঝরলো ৩১ প্রাণ ইসরাইলি ববর্তার বিরুদ্ধে উত্তাল বিশ্ব বেড়েছে লকডাউন, বন্ধই থাকছে লঞ্চ-ট্রেন-দূরপাল্লার বাস যুক্তরাষ্ট্র সফরে গেলেন বিমান বাহিনীর প্রধান ওআইসি’র বৈঠক জরুরি ভিত্তিতে ফিলিস্তিন ইস্যুর সমাধান চায় বাংলাদেশ ৪ দেশে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট বাতিল শিগগিরই দেশে আসছে শক্তিশালী ব্যাটারি ও আল্ট্রা স্লিম ডিজাইনের অপো এফ১৯

প্রেমিককে নিয়ে প্রেমিকা উধাও; থানায় অপহৃরণের অভিযোগ

 

মোঃ নাসির উদ্দিন, ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে এক কলেজ পড়–য়া ছাত্রী সালমা আক্তার (১৭) তার প্রেমিক ডিগ্রিতে পড়–য়া নাজমুল হাসান নামের এক ছাত্রকে নিয়ে উধাও হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সালমা উপজেলার কুরুয়া গ্রামের অটো-ভ্যান চালক মো. সাইম উদ্দিনের মেয়ে। সে লুৎফর রহমান মতিন মহিলা কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী। নাজমুল ভূঞাপুর উপজেলার গোবিন্দাসী ইউনিয়নের কয়েড়া গ্রামের দিন-মজুর মিনহাজ উদ্দিনের ছেলে। সে নিকরাইল শমশের ফকির ডিগ্রি কলেজের ডিগ্রি ২য় বর্ষের ছাত্র।

সম্প্রতি গত মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) সকালে সালমা তার প্রেমিক নাজমুলকে মোবাইল ফোন করে তাদের বাড়িতে আসার কথা বলে ভয়ভীতি দেখিয়ে নাজমুল কে নিকরাইল বাজারে ডেকে নিয়ে উধাও হয়ে যায়। এ ঘটনার পরপরই সন্ধ্যায় মেয়ের মা-বাবা ও স্থানীয় মেম্বারসহ মাতাব্বরদের নিয়ে নাজমুলদের বাড়িতে আতঙ্ক ও হয়রানি করে। পরে সন্ধ্যা রাতেই ছেলে পক্ষ থেকে স্থানীয় মেম্বার ও এলাকার মাতাব্বররা এসে মিমাংসার চেষ্টা করে ছেলে-মেয়েকে ৭ দিনের মধ্যে বের করার প্রস্তাব উঠে আসে। সালিশ বৈঠকে ৩ দিনের সময় বেঁধে ছেলের বাবাকে। অনেক খোঁজাখুজি করে ছেলে পক্ষের লোকজন গত শুক্রবার (২৯ নভেম্বর) রাতে উভয়ইকেই খুঁজে বের করে নিয়ে আসা হয়।

জানা গেছে, নাজমুলের বাবা উপজেলার কয়েড়া গ্রামে বসবাস করে আসছেন। নামজুল তার নানার বাড়িতে না থেকে ছোট বেলা থেকেই দাদার বাড়িতে পড়াশোনা করেছেন। ৭ম শ্রেণিতে পড়া সময়ে নাজমুল নানার বাড়িতে চলে এসে লেখা পড়া করে আসছেন। সম্প্রতি, ১০ শ্রেণিতে থেকে নাজমুল আত্মীয়’র সুবাধে সালমাদের বাড়িতে মাঝে মাঝে আসা যাওয়া করতেন। এর মধ্যেই দুজনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এ সম্পর্ক দু’পরিবারের কেউও মেনে নিতে রাজি হয়নি। এদিকে, সামলার পরিবার থেকে সালমা কে অন্যত্র বিয়ে দেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করে। কিন্তু সালমা রাজি না হলে তার মা বকাঝকা করে মারধর করে সালমাকে। এ ক্ষোভে রাগ করে গত মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) সকালে সেচ্ছায় বাড়ি থেকে বের হয়ে নাজমুলের খোঁজে নিকরাইল বাজারে আসে। সালমা নাজমুলের বাড়ি না চিনলে তাকে ফোন করে এগিয়ে আসতে বলে। পরে নাজমুল নিকরাইল বাজারে গেলে প্রেমিকা সালমা তাকে নানা রকম ভয়ভীতি দেখিয়ে উভয়ই আত্মগোপনে থাকেন।

এ ঘটনায় বেঁধে দেয়া সময়ে ৪ দিনপর গত রবিবার (০২ নভেম্বর) দুপুরে গোবিন্দাসী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান তালুকদার বাবলু, নারান্দিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শুকুর মাহমুদ, অলোয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. রহিজ উদ্দিন আকন্দ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ এলাকার মাতাব্বরদের উপস্থিতে উভয় পক্ষকে নিয়ে গ্রাম্য সালিশ হয়। সেখানে মেয়ে পক্ষ সালিশ কে প্রত্যাখান করে উঠে যায়। অপরদিকে, সালমা সেচ্ছায় নাজমুল কে মোবাইল ফোন করে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে আত্মগোপনে থাকেন এবং নামজুল কোনো উপায় না পেয়ে তার এক আত্মীয় বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নিয়ে ৩ লাখ টাকার কাবিনে তারা বিয়ে করেন বলে জানায় নাজমুলের পরিবার।

সালিশ প্রত্যাখান করে গত রবিবার (০২ নভেম্বর) মেয়ের মা আসমানী বেগম বাদী হয়ে কালিহাতী থানায় অপহৃরণের অভিযোগ দায়ের করেন। হতদরিদ্র নাজমুলের বাবা মিনহাজ উদ্দিন বলেন, গত নভেম্বর মাসের ২৬ তারিখ মঙ্গলবার সকালে সালমা মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে পালিয়ে যায়। কিছুদিন আত্মগোপনে থাকেন। এসব কিছুর জন্য মেয়ের মা দায়ী। এমন ঘটনার পরে জনপ্রতিনিধিদের মতামতে গ্রাম্য সালিশকেও মানছেন না তারা। মেয়ে পক্ষের পরিবারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তা সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে কালিহাতী উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. শুকুর মাহমুদ মুঠো ফোনে বলেন, কয়েড়ার নাজমুল ও কুরুয়া গ্রামের সালমার বিষয়টি নিয়ে গত রবিবার (০২ ডিসেম্বর) সকালে গ্রাম্য হয়েছে। এ সালিশে মেয়ে ছেলের পক্ষে থাকায় কোনো সমাধান হয়নি। পরে সালিশ শেষে মেয়ের মা বাদী হয়ে থানায় নাজমুল কে অভিযুক্ত করে অপহৃরণের অভিযোগ দায়ের করেন। ভূঞাপুর উপজেলার গোবিন্দাসী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান এ ঘটনার বিষয়টি সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নাজমুল ও সালমার বিষয়টির ব্যাপারে আমি অবগত আছি। গত রবিবার সকালে আমিসহ অন্যান্য চেয়ারম্যান ও স্থানীয় মাতাব্বদের উপস্থিতিতে সুষ্ঠ সমাধানের জন্য গ্রাম্য সালিশ হয়েছে।

এ ঘটনায় কালিহাতী থানার অফিসার ইনচার্জ হাসান আল মামুন বলেন, অপহৃরণের অভিযোগ এনে মেয়ের মা আসমানী বেগম বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। মেয়ের বয়স ১৮ না হওয়ায় বিয়ে আইন সম্মত নয়। সুষ্ঠ সমাধানের জন্য তাদের উভয়কে উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

https://twitter.com/WDeshersangbad


বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone