শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০১:৫৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
গৃহহীনদের ঘর দেয়ার কথা বলে অর্থ নেয়ার অভিযোগে সাঁথিয়ায় আ’লীগ নেতাকে শোক’জ করোনায় ১৫ দিনে ১২ ব্যাংকারের মৃত্যু পৃথিবীতে কোনো জালিম চিরস্থায়ী হয়নি: বাবুনগরী যারা আ.লীগ সমর্থন করে তারা প্রকৃত মুসলমান নয়: নূর চট্টগ্রামে বেপরোয়া হুইপপুত্র যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা অক্সিজেনের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে ভারতে ৪ ঘণ্টা পর পাকিস্তানে খুলে দেয়া হলো সোশ্যাল মিডিয়া করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১০১ জনের মৃত্যু ভাড়াটিয়াকে তাড়িয়ে দিলেন বাড়িওয়ালা, পুলিশের হস্তক্ষেপে রক্ষা জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে জনপ্রিয় নায়িকা মিষ্টি মেয়ে কবরী স্বামী পরিত্যক্তা নারীকে গণধর্ষণ, আটক ৩ দুই দিনের রিমান্ডে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল লকডাউনেও মসজিদে মসজিদে মুসল্লিদের ঢল বেনাপোলে ৮৮ কেজি গাঁজাসহ মাদক কারবারী আটক

বাড়ি নির্মাণে দুই কোটি টাকা ঋণ দেবে বিএইচবিএফসি

বাড়ি নির্মাণের ক্ষেত্রে ঋণের পরিমাণ বাড়িয়েছে বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশন (বিএইচবিএফসি)। এতদিন গৃহঋণের সীমা এক কোটি ২০ লাখ টাকা থাকলেও তা বড়িয়ে করা হয়েছে দুই কোটি টাকা। সম্প্রতি এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বিএইচবিএফসি।

৯ শতাংশ সরল সুদে শুধু ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের উন্নত কিছু এলাকার গ্রাহকরা পাবেন এ ঋণ। এর মধ্যে ঢাকার গুলশান, বনানী, ধানমন্ডি, বারিধারা, উত্তরা, লালমাটিয়া এবং ডিওএইচএস (মহাখালী, বারিধারা, বনানী, মিরপুর) এলাকার সরকারি প্লটের জন্য প্রযোজ্য হবে। এছাড়া চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ, চান্দগাঁও, কর্ণেলহাট, বাকলিয়া, কল্পলোক আবাসিক এলাকার সরকারি প্লট এবং খুলশী আবাসিক এলাকার জন্যও প্রযোজ্য হবে।

নতুন নিয়মানুযায়ী, বাড়ি নির্মাণে একক ব্যক্তি এখন দুই কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণ পাবেন। আর গ্রুপ করে ঋণ নিলে প্রতি জনে পাবেন এক কোটি ২০ লাখ টাকা করে। তবে ফ্ল্যাট কেনার জন্য এক কোটি ২০ লাখ টাকা করে ঋণ পাবেন গ্রাহকরা।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশন সরকারী মালিকানাধীন একটি বিশেষায়িত আর্থিক প্রতিষ্ঠান। এর পরিশোধিত মূলধনের সবটাই বাংলাদেশ সরকার থেকে পরিশোধিত। কর্পোরেশনের তহবিলের মূল উৎস সরকার কর্তৃক পরিশোধিত মূলধন। কর্পোরেশনের অনুমোদিত মূলধনের পরিমাণ ১১০ কোটি টাকা এবং পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ ১১০ কোটি টাকা।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের সহায়তায় সরকার গ্যারান্টির মাধ্যমে বাংলাদেশ ব্যাংক ও বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর কাছে ডিবেঞ্চার বিক্রির মাধ্যমে কর্পোরেশনের তহবিল সংগ্রহ করে থাকে। এছাড়া কর্পোরেশন সরকারি ঋণ ও আমানত গ্রহণের মাধ্যমে তহবিলের সংস্থান করে থাকে।

দেশের গৃহায়ণ সমস্যার সমাধানে জনসাধারণকে গৃহ নির্মাণ খাতে আর্থিক সহযোগিতা প্রদানের উদ্দেশ্যে ১৯৫২ সালে হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠিত হয়। পরবর্তীতে ১৯৭৩ সালে জারি করা রাষ্ট্রপতির ৭নং আদেশ বলে বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশন (বিইচবিএফসি) পুনর্গঠিত হয়।

কর্পোরেশনের সদর দফতর ঢাকায় অবস্থিত। সদর দফতরে ৬টি মহাবিভাগ ও ১৪টি বিভাগ রয়েছে। ঢাকায় ২টিসহ চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী, বরিশাল, সিলেট, ময়মনসিংহ, রংপুর ও ফরিদপুরে একটি করে মোট ১০টি জোনাল অফিস রয়েছে। এছাড়া জোনাল অফিসগুলোর আওতাধীন সারাদেশে ১৪টি রিজিওনাল ও ৬০টি শাখা অফিস রয়েছে।

মানুষের ৫টি মৌলিক চাহিদার অন্যতম হলো বাসস্থান। জনবহুল এ দেশে আবাসন চাহিদা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে, ফলে আবাসনের সংস্থান কঠিন হয়ে পড়ছে। এই প্রকট আবাসিক সমস্যার সমাধানে সহায়তা প্রদান করাই বিএইচবিএফসির মূল উদ্দেশ্য। গৃহায়ণ খাতে অর্থ সংস্থানের ক্ষেত্রে বিএইচবিএফসি কয়েক যুগ ধরে এ দেশের একমাত্র প্রতিষ্ঠান হিসাবে কাজ করে আসছে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38448542
Users Today : 166
Users Yesterday : 1193
Views Today : 536
Who's Online : 12
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone