মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৪৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
৭টি বৈশাখী ছড়া জঙ্গিনেতা মামুনুল হককে  গ্রেফতার – হেফাজতে ইসলামকে নিষিদ্ধ ও জঙ্গি সংগঠন ঘোষণা করুন: কমিউনিস্ট পার্টি(মার্কসবাদী) বিশেষ প্রয়োজনে ব্যাংক খোলা রাখার নির্দেশ সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত ব্যাংক খোলা চাঁদ দেখা গেছে, বুধবার থেকে রোজা ঢাবি মেডিকেল সেন্টার আধুনিকায়ন করে শহীদ বুদ্ধিজীবী ডা. মোর্তজার নামে নামকরণের দাবি পণ্য বিপণনে সমস্যা হলে ফোন করুন জরুরি সেবায় ধর্মীয় নেতাকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় উত্তাল পাকিস্তান, গুলিতে নিহত ২ সাংবাদিকদের ‘মুভমেন্ট পাস’ লাগবে না খাদ্যপণ্যের বিজ্ঞাপনে একগুচ্ছ নিষেধাজ্ঞা আসছে, থাকছে জেল-জরিমানা হাতে বড় একটি ট্যাবলেট ফোন নিয়ে ডিজিটাল জুয়ার আসরে ব্যস্ত তরুণ-তরুণী রমজানের নতুন চাঁদ দেখে বিশ্বনবী যে দোয়া পড়তেন ফরিদপুরে চাের সন্দেহে গণপিটুনীতে একজন নিহত এটিএম বুথ থেকে তোলা যাবে এক লাখ টাকা যৌবন দীর্ঘস্থায়ী করে যোগ ব্যায়াম ‘শশাঙ্গাসন’

মেগা প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগ আন্দোলনকারীদের দাবী মেনে নিলো জাবি প্রশাসন

মামুনুর রশিদ, জাবি প্রতিনিধি:

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগে সৃষ্ট সংকট সমাধানে আলোচনায় বসেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এবং আন্দোলনরত শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

আলোচনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষে উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আমির হোসেন ও অধ্যাপক নুরুল আলম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শেখ মো. মনজুরুল হক, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ, প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী নাসির উদ্দিন এবং নির্বাহী প্রকৌশলী (সিভিল) আহসান হাবিব অংশ নিয়েছেন।

আলোচনায় আন্দোলনরত ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ পক্ষ থেকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ২২ সদস্যের প্রতিনিধি দল অংশ নিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৩:৪০ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন প্রশাসনিক ভবনের কাউন্সিল কক্ষে আলোচনা শুরু হয়। আলোচনা চলে রাত ৮:৪৫ পর্যন্ত। দীর্ঘ আলোচনা শেষে প্রশাসন আন্দোলনকারীদের দাবীগুলো মেনে নেন। ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ লিখিত সিদ্ধান্ত সাংবাদিক ও আন্দোলনকারীদের সামনে তুলে ধরেন।

আন্দোলনকারীদের সাথে বৈঠকে নেওয়া সিদ্ধান্ত:

১. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হলের পাশ থেকে ২ টি হল সরানো হবে। নতুন জায়গা কোথায় হবে সেটার জন্য মাস্টারপ্ল্যান পর্যালোচনা কমিটি,  সকল ছাত্র সংগঠন, এবং অন্যান্য শিক্ষক- শিক্ষার্থীদের সাথে আলোচনা করে নির্ধারণ করা হবে।

২. বিচার বিভাগীয় তদন্তের ব্যাপারে আইনজ্ঞদের পরামর্শের জন্য ৩ কার্যদিবস সময় নিয়েছেন উপাচার্য। আগামী বুধবার মিটিং হবে।

৩. পর্যালোচনা করে প্রয়োজনীয় সংশোধন করা হবে।

ক. যৌথ মতামতের ভিত্তিতে মাস্টারপ্ল্যান পর্যালোচনা কমিটি পুনর্গঠন করা হবে।

খ. নির্মিতব্য সকল স্থাপনার  গুণগতমান নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে বিশেষায়িত কমিটি গঠন করা হবে।

গ. সর্বদলীয় শিক্ষক- শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে মনিটরিং কমিটি গঠন করা হবে। যারা সমস্ত কাজের অগ্রগতি মনিটর করবেন এবং ব্যয়ের সচ্ছতা পর্যালোচনা করবেন।

এর আগে গত ৫ সেপ্টেম্বর অবরোধ চলাকালে উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম তাদেরকে আলোচনায় বসার প্রস্তাব দিলে দাবীর বিষয়ে ‘আন্তরিকতার’ শর্তে প্রস্তাবে রাজি হন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। তবে ৭ সেপ্টেম্বর আলোচনার আগ মুহূর্তে আন্দোলনরত এক শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগের এক নেতা শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করলে পূর্ব-নির্ধারিত আলোচনা ভেস্তে যায়।

প্রসঙ্গত বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান মেগা প্রকল্পের মাস্টার প্ল্যান অস্বচ্ছ ও অপূর্ণাঙ্গ বলে দাবি করে আন্দোলন করে আসছেন একদল শিক্ষক-শিক্ষার্থী। ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে তিন দফা দাবিতে (৩, ৪ ও ৫ সেপ্টেম্বর) সকাল ৭:৩০ থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত দুটি প্রশাসনিক ভবন অবরোধ করে রাখেন। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েন বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এ তিনদিন কোনো দাফতরিক কাজ সম্পাদন হয়নি।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38444167
Users Today : 1122
Users Yesterday : 1256
Views Today : 14690
Who's Online : 47
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone