বুধবার, ১৯ মে ২০২১, ০২:৩৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে লক্ষ্মীপুরে মানববন্ধন চাটখিলে টিসিবির ১৯৬ লিটার তেল জব্দ, ২০হাজার টাকা জরিমানা করোনায় আরো ৩০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১২৭২ ‘সাংবাদিক নির্যাতনে বিশ্ব মিডিয়ায় বাংলাদেশের ইমেজ প্রশ্নবিদ্ধ’ কবিতা…অভিমান -বিচিত্র কুমার রোজিনার বিষয়ে দুই মন্ত্রীর সঙ্গে প্রেসক্লাব নেতাদের বৈঠক ‘সরকারকে বাঁশ দেওয়ার জন্য গুটিকয়েক মন্ত্রী–সচিবই যথেষ্ট’ সম্পাদক পরিষদের বিবৃতি সংবাদপত্রের কণ্ঠরোধের মানসিকতা থেকে রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা বৃহস্পতিবার থেকে ৬৫ দিন সমুদ্রে মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা সাংবাদিককে হেনস্তা: স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি সাংবাদিক রোজিনাকে নি:শর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছে বিএমএসএফ নওগাঁর মহাদেবপুরে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের উপর হামলার প্রতিবাদে ডিজিটাল প্রেসক্লাবের নিন্দা ধুপাজান চলতি নদীতে সদর থানা পুলিশের অভিযানে ৭টি নৌকা আটক প্রায় ৩লাখ টাকা জরিমানা নোয়াখালীতে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নির্যাতন ও আটকের প্রতিবাদে মানববন্ধন বরিশালে গরমে তৃপ্তি মেটাতে পানি তালের চাহিদা বেড়েছে

সম্রাটের মুক্তি চান তারা!

ডেস্ক : যুবলীগের ঢাকা দক্ষিণের সভাপতি হলেও ইসমাইল হোসেন সম্রাটের প্রভাব ছিল সর্বত্র। দলের কর্মসূচি পালনসহ সবকিছুতেই আলোচনায় ছিলেন তিনি। তার কাছে প্রশ্রয় পেতেন সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

সম্প্রতি ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকে নতুন করে আলোচনায় আসেন সম্রাট। এই অবৈধ ব্যবসা, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অভিযোগে ইতিমধ্যে র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছেন তিনি। তবে সম্রাটের দুঃসময়ে কেউ তাকে মনে না রাখলেও যুবলীগের দুই নেতা তার মুক্তি দাবি করেছেন।

কাকরাইলে ভূঁইয়া ম্যানশনের সামনে যুবলীগ দক্ষিণের সহ-সম্পাদক মো. নূরুল আলম ভুঁইয়া রুবেল ও মো. জসিম উদ্দিন স্বপন ফেস্টুন লাগিয়েছেন। আলাদা ফেস্টুনে তারা সম্রাটকে দলের দুর্দিনের কর্মী দাবি করে তার মুক্তি চেয়েছেন। তাকে রাজপথে ফিরিয়ে দিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার প্রতি অনুরোধও করেছেন।

গত ৬ অক্টোবর কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ওরফে সম্রাটকে আটক র‌্যাব। তার সঙ্গে থাকা যুবলীগের আরেক নেতা এনামুল হক আরমানকেও আটক করা হয়। পরে তাকে নিয়ে অভিযান চালানো হয় মূল আড্ডাস্থল হিসেবে পরিচিত কাকরাইলের রাজমনি সিনেমা হলের উল্টো পাশের ভুঁইয়া ম্যানশনে।

download

সেখানে অভিযানের পর মদ, ইয়াবা ও ক্যাঙারুর চামড়া উদ্ধার করে র‌্যাব। ইতিমধ্যে তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে দুটি। আর বন্যপ্রাণী আইনে ভ্রাম্যমাণ আদালতের রায়ে ছয় মাসের কারাভোগ করছেন তিনি। যদিও হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে এখন হাসপাতালে আছেন সম্রাট।

যুবলীগ থেকে বহিষ্কৃত প্রভাবশালী নেতা সম্রাট গ্রেপ্তার হওয়ার পর এর প্রতিবাদে তেমন কোনো কর্মসূচি চোখে পড়েনি। কাকরাইলের কার্যালয় থেকে অভিযান শেষে র‌্যাব সম্রাটকে নিয়ে যাওয়ার সময় তার কিছু নেতাকর্মী বিক্ষোভ করে। এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কেউ কেউ সম্রাটের পক্ষে অবস্থান নেন। তাদের দাবি, সম্রাটে ছিলেন দলের দুর্দিনের কাণ্ডারী। তার এই পরিণতিতে দলের জন্য কেউ ত্যাগ স্বীকার করবে না।

Please Share This Post in Your Social Media

https://twitter.com/WDeshersangbad


বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone