সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৯:০২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
লকডাউন আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর সুপারিশ লাইভে ক্ষমা চাইলেন নুর লন্ডনে তালা ভেঙে অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামালের জামাতার লাশ উদ্ধার সোয়া কোটি মানুষের জন্য মোটে ২৬টি আইসিইউ বেড! বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয় ‘হাসপাতালে ভর্তির ৫ দিনের মধ্যে মারা যাচ্ছেন ৪৮ শতাংশ করোনা রোগী’ ‘নিজের মাথার ওপর নিজেই বোমা ফাটানো’ এটা সম্ভব? মামুনুলের মুক্তি চেয়ে খেলাফত মজলিস নেতাদের হুশিয়ারি বাংলাদেশে করোনা টানা তৃতীয় দিনের মতো শতাধিক মৃত্যুর রেকর্ড চ্যালেঞ্জের মুখে টিকা কার্যক্রম! ৩৬ লাখ পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেবেন প্রধানমন্ত্রী হেফাজতের নাশকতা ঠেকাতে সর্বোচ্চ সতর্কতা মেয়াদহীন এনআইডি দিয়ে কাজে বাধা নেই স্ত্রী বাবার বাড়ি, মাঝরাতে পুত্রবধূকে ধর্ষণ করল শ্বশুর বিদ্যুতায়িত স্ত্রীকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল স্বামীর

সোলেইমানির দাফনে জনসমুদ্র, পদদলিত হয়ে নিহ’ত ৩০


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সোলেইমানির দাফনে তার নিজ শহর কেরমানে সমবেত হয়েছেন বহু মানুষ। ইরানের গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা যাচ্ছে, নিহ’ত সামরিক কমা’ন্ডার কাসেম সোলেইমানির দা’ফনের আনুষ্ঠানিকতায় যোগ দিতে আসা মানুষের মধ্যে পদদলিত হয়ে ৩০ জন নি’হ’ত হয়েছে।

এছাড়া ঐ ঘটনায় কেরমানে আরো ৪০ জন মানুষ আহ’ত হয়েছেন। ইতিমধ্যে কাসেম সোলেইমানির দা’ফনে যোগ দিতে এবং তার প্রতি শে’ষ শ্রদ্ধা জানাতে তার নিজ শহর কেরমানে শো’কের প্রতীক কালো কাপড় পড়া কয়েক লক্ষ মানুষ মানুষ জড়ো হয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে শুক্রবার ইরাকে মার্কিন ড্রোন হা’ম’লায় হ’ত্যা করা হয় সোলেইমানিকে। দক্ষিণ পূর্বের শহর কেরমানে আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সোলেইমানিকে দা’ফ’ন করা হচ্ছে। এর আগে তেহরানে তার জা’না’জায় লাখো মানুষ সমবেত হয়েছিল।

ইতিমধ্যে এই হ’ত্যার ক’ঠি’ন প্র’তিশো’ধ নেবার এবং রোববার ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তি থেকে সরে আসার ঘোষণা দিয়েছে ইরান। ৬২ বছর বয়সী সোলেইমানি ইরানের এলিট ফোর্স কুদস বাহিনীর প্রধান ছিলেন এবং মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের প্র’ভা’ব বাড়ানোর জন্য কাজের পেছনের প্রধান মানুষ ছিলেন।

নিজ শহর কেরমানে সোলেইমানিকে জাতীয় বীরের মর্যাদা দেয়া হয় এবং ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতোল্লাহ খামেনির পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ক্ষ’ম’তাশালী নেতা হিসেবে বিবেচনা করা হয়। সমবেতদের অনেকেই সোলেইমানির ছবি এবং ছবি সম্বলিত পোশাক পড়ে আসেন।

সবাই ভালো চোখে দেখে না সোলেইমানিকে। কিন্তু ইরানের সব মানুষ একইভাবে সোলেইমানিকে ইতিবাচকভাবে দেখে না। তিনি ক’ট্ট’রপ’ন্থী ছিলেন এবং ২০১৯ সালে সরকারবি’রো’ধী বি’ক্ষো’ভকারীদের ওপর গু’লি চালানোর পেছনের মূল শক্তি হিসেবে দেখা হয় তাকে।

বিবিসির মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক সম্পাদক জেরেমি ব্রাউন জানিয়েছেন, মার্কিন নিষে’ধা’জ্ঞার কারণে ইরানে যখন দারিদ্র্য বেড়ে যায়, সেসময় সোলেইমানি লেবানন, ইয়েমেন, ইরাক এবং সিরিয়ায় বিভিন্ন জোট গঠন এবং মিলিশিয়া বাহিনী তৈরির পেছনে বিপুল অর্থ ব্যয় করেছিলেন।

সিরিয়ার গৃ’হযু’দ্ধে তিনি প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদকে সমর্থন দেন, লেবাননের শিয়া মিলিশিয়া বাহিনী হেজবুল্লাকে সাহায্য করেন এবং ইরাকে ইসলামিক স্টেট গ্রুপের বিপক্ষে দেশটির মিলিশিয়া বাহিনীর পরিচালনায় সহায়তা করেন।

যুক্তরাষ্ট্র তাকে স’ন্ত্রা’সী মনে করতো, এবং প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন সোলেইমানি মার্কিন কূটনীতিক এবং ইরাক ও ওই অঞ্চলের অন্য জায়গায় থাকা মার্কিন সামরিক কর্মকর্তাদের উপর ‘আসন্ন’ হা’ম’লার ষ’ড়য’ন্ত্র করছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media


বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38451338
Users Today : 542
Users Yesterday : 1242
Views Today : 4342
Who's Online : 30
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone